BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শিশু মনোস্তত্ত্ব বুঝতে গিয়েও জেহাদের পথে, কাশ্মীরে ধৃত গবেষক জঙ্গি

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 30, 2019 5:13 pm|    Updated: April 30, 2019 5:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে আত্মঘাতী হামলার পাশাপাশিই ১৪ ফেব্রুয়ারি জহর টানেলে আরও এক বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ির অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল৷ আত্মঘাতী হামলার জন্য তাও প্রস্তুত ছিল৷ কোনও কারণে সেই পরিকল্পনা বানচাল হয়৷ এতদিন তদন্তের আড়ালে থাকলেও, এবার তা ধীরে ধীরে প্রকাশ্যে আসছে৷ সূত্রের খবর, অপারেশনের একটা অংশ হিসেবে এই গাড়ির নেপথ্যে রয়েছে এক গবেষকের মস্তিষ্ক৷ ঘটনার এতদিন পর ৬ জনকে গ্রেপ্তার করে এই তথ্য জানতে পেরেছেন তদন্তকারীরা৷ হিলাল আহমেদ মান্টো নামে পিএইচডি স্কলারও এই হামলার শরিক৷ তাঁকে ভাতিন্ডার পাঞ্জাব কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, হিলাল সদ্য নিষেধাজ্ঞা জারি করা জামাত-ই-ইসলামির ছাত্র সংগঠনের সক্রিয় সদস্য৷

[আরও পড়ুন: বাবার ছায়া পেরিয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে যশবন্তপুত্র, জয় নিয়ে প্রত্যয়ী জয়ন্ত]

হিলাল আহমেদকে জেরা করে রীতিমত চমকে উঠছেন তদন্তকারীরা৷ মনোবিজ্ঞানের গবেষণারত হিলালের গবেষণার বিষয় ছিল, পড়ুয়াদের উৎকণ্ঠা৷ এমন একটি সংবেদনশীল বিষয় নিয়ে গবেষণা করতে করতে কীভাবে একজন এমন এক নাশকতায়  জড়িয়ে পড়লেন, তা কিছুতেই বুঝে উঠতে পারছেন না তাঁরা৷ ধৃত বাকিরাও সকলে উচ্চশিক্ষিত৷ ওয়াইস আমিন নামে বিবিএ-র এক ছাত্রেরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে পুলওয়ামা কাণ্ডে৷ জহর টানেলে একটি ছোট বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ির চালক ছিল আমিন, যে ঘটনার ঠিক আগের মুহূর্ত গাড়ি থেকে ঝাঁপ দিয়ে পালিয়ে গিয়েছিল৷ সম্প্রতি তাকে বানিহাল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ উমর শফি, আকিব শাহ নামে আরও দুই অভিযুক্ত শ্রীনগরে বিসিএ পড়ছিল৷

[আরও পড়ুন:  সত্যিই কি হিমালয়ের বুকে তুষারমানবের অস্তিত্ব? কী বলছেন গবেষকরা]

তদন্তকারীরা জেরা করে যা বুঝেছেন, এধরনের মেধাবী ছাত্রদের বেছে নিয়ে জেহাদের মন্ত্রে মগজধোলাই করেছে জঙ্গি সংগঠনগুলি৷ অভিজ্ঞ এক আধিকারিকের কথায়, ‘ জামাত-উল-তলবা নামে একটি ছোট সংগঠন এসব মেধাবীদের বিস্তারিত খোঁজখবর নেয়৷ এরপর তাদের সংগঠিত করে ধর্মীয় কট্টরপন্থায় মগজ ধোলাই হয়৷ শেখানো হয় জেহাদের খুঁটিনাটি৷ উদ্বুদ্ধ করা হয় নাশকতার কাজে নামতে৷ পরবর্তী সময়ে এরাই হিজবুল মুজাহিদিনের সঙ্গে যুক্ত হয়৷ তবে পুলওয়ামা হামলার দিন আরও এক রহস্যজনক গাড়ি নিয়ে তদন্ত আরও এগোবে বলেই জানাচ্ছে পুলিশ৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement