BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ভোটের স্বার্থে দ্বিচারিতা? আক্রমণের পর রাজীব গান্ধীকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন মোদির

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 21, 2019 12:48 pm|    Updated: May 21, 2019 12:48 pm

PM Modi pays tribute to Rajiv Gandhi on 28th death anniversary

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর ২৮তম মৃত্যু বার্ষিকীতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন নরেন্দ্র মোদি৷ মঙ্গলবার টুইট করে প্রাক্তনকে শ্রদ্ধা জানালেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী৷ আইএনএস বিরাটের অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে, নির্বাচনী প্রচারে রাজীব গান্ধীরই কড়া সমালোচনা করেন মোদি৷ যা নিয়ে চরমে ওঠে রাজনৈতিক তরজা৷ ফলে এদিন নরেন্দ্র মোদির শ্রদ্ধাজ্ঞাপনকে কটাক্ষ করেছে বিরোধীদের একাংশ৷ তাঁদের মতে, নির্বাচনী প্রচারে যে ভাষায় প্রয়াত প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেছেন মোদি, এদিনের শোকজ্ঞাপন করে সেই পাপেরই প্রায়শ্চিত্ত৷

[ আরও পড়ুন: সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও ম্যাজিক ফিগার এনডিএ-র নাগালের বাইরেই, ইঙ্গিত সমীক্ষায় ]

দিন কয়েক আগে উত্তরপ্রদেশের একটি নির্বাচনী প্রচারসভা থেকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে ‘এক নম্বর দুর্নীতিবাজ’ বলে কটাক্ষ করেন মোদি৷ অভিযোগ করেন, ভারতীয় নৌসেনার রণতরী আইএনএস বিরাটে চড়ে সপরিবারে লাক্ষাদ্বীপে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন রাজীব গান্ধী৷ কিন্তু নরেন্দ্র মোদির এই দাবি উড়িয়ে দেন তৎকালীন নৌসেনার একাধিক শীর্ষ আধিকারিক৷ মোদির অস্বস্তি বাড়িয়ে প্রাক্তন নৌসেনা প্রধান অ্যাডমিরাল এল রামদাস জানান, গান্ধী পরিবারের ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য কোনও যুদ্ধজাহাজ পাঠায়নি নৌসেনা। ছুটি কাটাতে নয়, ১৯৮৭-এর ডিসেম্বর মাসে আইএনএস বিরাটে চড়ে লাক্ষাদ্বীপ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করতে গিয়েছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধী ও তাঁর স্ত্রী সোনিয়া গান্ধী৷ এই বিষয়ে তিনি উল্লেখ করেন, আইএনএস বিরাটের তৎকালীন ক্যাপ্টেন এবং কম্যান্ডিং অফিসার অ্যাডমিরাল পসরিচা, আইএনএস বিরাটের সঙ্গী আইএনএস বিন্ধগিরির দায়িত্বে থাকা অ্যাডমিরাল অরুণ প্রকাশ এবং আইএনএস গঙ্গার কম্যান্ডিং অফিসার ভাইস অ্যাডমিরাল মদনজিৎ সিংয়ের বক্তব্য।

[ আরও পড়ুন: গডসের জন্মদিন পালন, গ্রেপ্তার হিন্দু মহাসভার ছয় সদস্য ]

এমনকী, নরেন্দ্র মোদির এই অভিযোগ খারিজ করে দেন লাক্ষাদ্বীপের তৎকালীন প্রশাসক ওয়াজাহাত হাবিবুল্লাহ। তিনিও বলেন, “সেসময় রাজীব গান্ধী পারিবারিক ছুটি কাটাতে লাক্ষাদ্বীপে আসেননি। বরং তিনি এসেছিলেন সরকারি কাজে। তবে, তাঁর সঙ্গে স্ত্রী সোনিয়া গান্ধী এবং পরিবারের অন্য সদস্যরা ছিলেন।” হাবিবুল্লাহ-র দাবি, “আইএনএস বিরাটকেও ছুটি কাটাতে ব্যবহার করেননি রাজীব গান্ধী। বরং, যুদ্ধজাহাজটি রাখা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর অতিরিক্ত নিরাপত্তার জন্য। যে কোনও প্রধানমন্ত্রীরই এই অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রয়োজন হয়। আর জলপথে তাঁদের নিরাপত্তা দিতে হলে যুদ্ধজাহাজ ছাড়া আর কোনও উপায় থাকে না।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে