BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘প্রধানমন্ত্রী ঠিকই বলেছেন’, NRC নিয়ে ঢোক গিললেন অমিত শাহ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: December 24, 2019 8:52 pm|    Updated: December 24, 2019 8:53 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী ঠিকই বলেছেন। দেশজুড়ে NRC নিয়ে কোনও কথাই হয়নি বলে মঙ্গলবার জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন সংবাদ সংস্থা এএনআইকে সাক্ষাৎকারে একথা জানান। প্রসঙ্গত, রবিবার দিল্লির রামলীলা ময়দানের জনসভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেছিলেন, কোথাও কোনও এনআরসি নিয়ে আলোচনা হয়নি। অসমে সুপ্রিম কোর্টের তত্বাবধানে এনআরসি হয়েছে। দেশের কোথাও কোনও ডিটেনশন সেন্টার নেই। প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করেন, মোদি ও অমিত শাহের বক্তব্য পরস্পরবিরোধী। মিথ্যাচারের অভিযোগ তোলেন তিনি। বস্তুত, এনআরসি-সিএএ নিয়ে ঘরে বাইরে চাপের মুখে পড়েই ঢোক গিলতে বাধ্য হলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের।

উল্লেখ্য, এর আগে সংসদে বহুবার অমিত শাহ বলেছিলেন, দেশজুড়ে এনআরসি হবে। বাংলায় সভা করতে এসেও এনআরসির জুজু দেখিয়েছেন। কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংও দেশজুড়ে এনআরসির কথা ঘোষণা করেছেন। তারপর বিরোধীদের লাগাতার আক্রমণের জেরে রবিবার এনআরসি ইস্যুতে পিছু হটেন প্রধানমন্ত্রী। নিজের বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবিকে পক্ষান্তরে খণ্ডন করেন নরেন্দ্র মোদি। এদিন সংবাদ সংস্থাকে অমিত শাহ বলেন, ‘দেশজুড়ে এনআরসি হচ্ছে না এখন। তাই এই নিয়ে আর কোনও আলোচনার প্রশ্নই নেই। প্রধানমন্ত্রী ঠিকই বলছেন, সংসদ বা মন্ত্রিসভার বৈঠকে কখনও এনআরসি নিয়ে আলোচনা হয়নি।’ একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, মন্ত্রিসভা এনপিআর বা ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারের জন্য সিলমোহর দিয়েছে। এনপিআরের সঙ্গে এনআরসির কোনও সম্পর্ক নেই। এনপিআরের তথ্য এনআরসির জন্য ব্যবহার করা হবে না বলে আশ্বস্তও করেছেন।

[আরও পড়ুন: গুরুত্ব পেল না রাজ্যের আপত্তি! কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাশ এনপিআর আপডেটের প্রস্তাব]

তিনি গোটা বিষয়টিই ভুল বোঝাবুঝি বলে ব্যাখ্যা করেছেন এদিন। এনপিআর ও এনআরসির মধ্যে কোনও সম্পর্ক নেই বলে জানিয়ে শাহ বলেছেন, এনপিআরের জন্য কোনও নথির প্রয়োজন নেই। এই কাজ দশ মিনিটে সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। বিরোধীরা ভুল তথ্য ছড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement