BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা যুদ্ধে জয়ী হতে সাতটি বিষয়ে দেশবাসীর সঙ্গ চাইলেন মোদি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: April 14, 2020 11:31 am|    Updated: April 14, 2020 11:31 am

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩ মে পর্যন্ত দেশজুড়ে বাড়ানো হল লকডাউনের মেয়াদ। মঙ্গলবার সকালে জাতির উদ্দেশে ভাষণে এই ঘোষণাই করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই সঙ্গে দেশবাসীকে সাতটি বিষয়ে সঙ্গ দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

আজ, ১৪ এপ্রিল লকডাউনের প্রথম পর্যায়ের শেষ দিন। এদিনই দ্বিতীয় পর্যায় শুরুর কথা ঘোষণা করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী। বিশেষজ্ঞদের মতামত মেনেই মে মাসের ৩ তারিখ পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো হল। দেশবাসী যেভাবে লকডাউনের নিয়ম পালন করছেন, তার জন্য প্রত্যেককে ধন্যবাদও জানান মোদি। তাঁর অনুরোধ, করোনাকে নির্মূল করতে আগামিদিনেও যেন এভাবেই নিয়ম মেনে ঘরে থাকেন মানুষ। নিজের ভাষণ শেষ করার আগে মোদি বলেন, “বিদায় নেওয়ার আগে আমি সাতটি বিষয়ে আপনাদের সঙ্গ চাই। সাতটি বিষয়ই জয়ী হওয়ার রাস্তা হয়ে উঠবে। রাষ্ট্রকে জাগ্রত করবে।” কী কী বিষয় মেনে চলার অনুরোধ জানালেন প্রধানমন্ত্রী?

[আরও পড়ুন: ‘করোনা ভারতে পা রাখার আগেই প্রস্তুতি নিয়েছিল সরকার’, দাবি প্রধানমন্ত্রীর]

১. বাড়িতে কোনও বয়স্ক মানুষ থাকলে, তাঁর বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে। যদি কেউ আগে থেকেই অসুস্থ থাকেন, তাহলে তাঁর বেশি করে যত্ন নেওয়া এই সময় বেশি অত্যন্ত জরুরি।
২. লকডাউন ও সামাজিক দূরত্ব বা সোশ্যাস ডিসটেন্সিংয়ের নিয়মের পালন করতে হবে কঠোরভাবে। সেই সঙ্গে বাড়িতে তৈরি মাস্ক ব্যবহার অত্যাবশ্যক বলেও জানান মোদি।
৩. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আয়ুশ মন্ত্রক যেসমস্ত পরামর্শ দিচ্ছে তা মেনে চলতে হবে। অর্থাৎ ঘরোয়া টোটকাতেই করোনাকে মাত করার পরামর্শ দেন মোদি।
৪. করোনা মোকাবিলায় ব্রহ্মাস্ত্র আরোগ্য অ্যাপ। আপনি সুস্থ নাকি শরীরে করোনায় উপসর্গ দেখা দিয়েছে, তা অনায়াসেই জানা যাবে এই অ্যাপের মাধ্যমে। আর তাই স্মার্টফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপটি ডাউনলোড করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, “নিজে অ্যাপটি ডাউনলোড করুন এবং অন্যকেও বলুন ব্যবহার করতে।”

৫. দেশের এমন কঠিন সংকটে যতটা সম্ভব গরিব পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন মোদি। বলেন, “দরিদ্র পরিবারগুলির দেখভাল করুন। তাদের মুখে খাবার তুলে দিন।”
৬. ব্যবসা কিংবা চাকরির সঙ্গে যুক্ত যাঁরা, তাঁদের প্রতি মোদির অনুরোধ, সহকর্মীদের প্রতি সহানুভূতিশীল হোন। এমন কঠিন পরিস্থিতিতে কেউ যেন চাকরি না হারায়।
৭. সর্বোপরি, সমাজের করোনা যোদ্ধা অর্থাৎ চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাফাইকর্মী, পুলিশ-সহ যারা জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত, তাঁদের সম্মান জানান।

[আরও পড়ুন: করোনার থাবা এবার মেঘালয়েও, আক্রান্ত শিলংয়ের হাসপাতালের এক ডাক্তার]

মোদির বিশ্বাস, এই সাতটি বিষয়ে দেশবাসী সঙ্গ দিলে একজোট হয়ে করোনার বিরুদ্ধে জয়লাভ করা যাবে। মানুষ নিজে বাঁচবে এবং রাষ্ট্রও সুরক্ষিত থাকবে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement