১ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্ক্রিনিংয়ে আপত্তি, স্বাস্থ্যকর্মীদের তালাবন্দি করে রেখে পুলিশের উপর হামলা পরিবারের

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 12, 2020 9:50 am|    Updated: April 12, 2020 9:50 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাড়ি বাড়ি স্ক্রিনিংয়ের মাধ্যমে করোনা আক্রান্ত কি না, তা চিহ্নিত করা হচ্ছে বেশ কয়েক জায়গায়। কিন্তু সেই স্ক্রিনিং করতে গিয়েই বিপাকে পড়লেন একদল স্বাস্থ্যকর্মী। তাঁদের একটি বাড়িতে জোর করে আটকে রাখা হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ খবর পাওয়া মাত্রই তাঁদের উদ্ধার করতে যায়। তবে সেখানেও বিপত্তি। পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়। জম্মু কাশ্মীরের বদগামের এই ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ওয়াথুরা গ্রামের শেখপুরার এক বাসিন্দার শনিবার স্ত্রিনিং করার পরিকল্পনা করেন ছাদুরা হাসপাতালের কর্মীরা। সেই অনুযায়ী তাঁর বাড়িতে যান স্বাস্থ্যকর্মীরা। অভিযোগ, স্ক্রিনিং করতে গেলে ওই ব্যক্তির পরিজনেরা তাতে বাধা দেয়। স্বাস্থ্যকর্মীরা বারবার স্ক্রিনিংয়ের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে বোঝানোর চেষ্টা করেন। তবে তাতে লাভ হয়নি। পরিবর্তে তাতে ওই ব্যক্তির পরিজনেরা বিরক্ত হয়। স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়ে প্রত্যেকে। কথা কাটাকাটির মাঝেই স্বাস্থ্যকর্মীদের একটি ঘরে ধাক্কা দিয়ে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়। দীর্ঘক্ষণ সেখানেই আটক করে রাখা হয় তাঁদের।

[আরও পড়ুন: ‘লকডাউন না হলে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ পেরিয়ে যেত’, দাবি স্বাস্থ্যমন্ত্রকের]

এদিকে, এই খবর পাওয়ামাত্রই ঘটনাস্থলে দৌড়ে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী। স্বাস্থ্যকর্মীদের উদ্ধার করতে গিয়ে হামলার শিকার হন উর্দিধারীরা। তাঁদের লক্ষ্য করে পাথর ছোঁড়া হয়। তাতে তিনজন পুলিশকর্মী জখম হন। তবে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিরাপদেই উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এই ঘটনায় ওই পরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯ ও ৩৫৩ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: খুলে গেল শ্রীনগর-লে হাইওয়ে, লকডাউনে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সরবরাহের সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement