BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সহজেই মিটবে জমি বিবাদ! এবার আধারের ধাঁচে ‘সম্পত্তি কার্ড’ চালু করল মোদি সরকার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 11, 2020 2:15 pm|    Updated: October 11, 2020 2:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জমি সংক্রান্ত কাগজপত্রের ঝামেলা, বারবার সরকারি দপ্তরের চক্কর কাটা, আধিকারিকদের হয়রানি। এবার এইসব মুশকিল আসান করতে আধার কার্ডের ধাঁচে ‘সম্পত্তি কার্ড’ (Property Cards ) চালু করল কেন্দ্রের মোদি সরকার। রবিবার ৬ রাজ্যের কৃষকদের এই সম্পত্তি কার্ড দেওয়ার প্রক্রিয়ার সূচনা করলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

কৃষকদের সম্পত্তির মালিকানা সংক্রান্ত বিষয়গুলি আরও সহজ করতে গত ২৪ এপ্রিল জাতীয় পঞ্চায়েতিরাজ দিবসেই ‘স্বামীত্ব‘ (SVAMITVA) প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। সেই প্রকল্পের অধীনেই এই সম্পত্তি কার্ড দেওয়া শুরু হয়েছে। কেন্দ্রের লক্ষ্য, এই কার্ডে প্রত্যেকের সম্পত্তি সম্পর্কিত খুঁটিনাটি তথ্য একত্রিত করে লিপিবদ্ধ করা। জমির সীমানা থেকে শুরু করে যাবতীয় তথ্য থাকবে এই কার্ডে। কেন্দ্রের দাবি, এর ফলে জমির কাগজপত্র তৈরিতে হয়রানির দিন শেষ হবে। সহজেই জমি বেচাকেনা বা বন্ধক রাখা যাবে। এই ‘প্রপার্টি কার্ড’কেই সম্পত্তি হিসেবে ব্যবহার করে ঋণ নেওয়া যাবে। সর্বোপরি, এই কার্ড চালু হয়ে গেল গোটা ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আসবে, কেউ জমির ন্যায্য মালিকানা থেকে বঞ্চিত হবে না।

[আরও পড়ুন: দিতে হবে না ইন্টারভিউ! কেন্দ্রের পথে হেঁটে সরকারি চাকরির নিয়োগে আমূল বদল ২৩ রাজ্যে]

রবিবার জয়প্রকাশ নারায়ণের (Jayaprakash Narayan) জন্মতিথিতে এক ভারচুয়াল সভায় নিজের হাতে এই ‘প্রপার্টি কার্ড’ বিলি শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী। আপাতত ৬ রাজ্যে ৭৬৩টি গ্রামের এক লক্ষ কৃষককে এই ‘প্রপার্টি কার্ড’ বা সম্পত্তি কার্ড দেওয়া হবে। রাজ্য সরকার এই কার্ড একেবারে বিনামূল্যে পৌঁছে দেবে কৃষকদের কাছে। কেন্দ্রের দাবি, ২০২৪ সালের মধ্যে এই সুবিধা দেশের সব গ্রামে পৌঁছে দেওয়া হবে। যার ফলে সম্পত্তি নিয়ে যাবতীয় বিতর্কের অবসান ঘটবে। এদিকে, এই ‘প্রপার্টি কার্ড’ বিলি শুরু মঞ্চ থেকেই আরও একটা বড়সড় দাবি করেছেন নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী বলছেন,”দশকের পর দশক ধরে আমাদের দেশের কোটি কোটি মানুষের নিজের বাড়ি ছিল না। তবে, আমাদের সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সুবাদে ২ কোটি পরিবার আজ পাকা বাড়ি পেয়েছে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement