৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ট্রেনে ধূমপান আর শাস্তিযোগ্য অপরাধ নয়! আইন বদল করতে চলেছে রেল

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: September 7, 2020 2:56 pm|    Updated: September 7, 2020 2:56 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: ট্রেনে সিগারেট খাওয়া, ভিক্ষে করা, অশান্তি করা, ভুল করে মহিলা কামরায় উঠে পড়ার মতো ঘটনাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধের তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার প্রস্তাব এনেছে রেলমন্ত্রক। ফলত ভারতীয় রেল আইন বদলাতে চলেছে। আইনি পদক্ষেপ যথাযথ ব্যবহার না হওয়ায় সরাসরি ছাড় বা স্পট ফাইনের ব্যবস্থা চালু করতে এই আইন বদলের সিদ্ধান্ত বলে আরপিএফ সূত্রে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: পুলিশের সামনেই খুনের অভিযুক্তকে পিটিয়ে মারল স্থানীয়রা, ভাইরাল মর্মান্তিক ঘটনার ভিডিও]

আরপিএফের এক কমান্ড্যান্ট জানিয়েছেন, যাত্রীরা যাতে চলাফেরায় স্বাচ্ছন্দ্য পান সে জন্য আইন রয়েছে রেলে। কিন্তু তার সদ্ব্যবহার হচ্ছে না। আইনকে ব্যবসায় পরিণত করেছে এক শ্রেণির আরপিএফ পোস্ট কর্তারা। রেল আইনের ২৯টির মধ্যে মাত্র ছ’টি ধারা বাদে সব কটি জামিন যোগ্য। অপরাধীদের সংশোধন করতে জরিমানা নিয়ে ছেড়ে দেওয়ার আইন রয়েছে। অথচ এক শ্রেণির পোস্ট কর্তৃপক্ষ মহুরীর মাধ্যমে মোটা টাকা বেআইনি আদায় করে যাচ্ছে। বহু অভিযোগ সত্বেও সমস্যার সমাধান না মেলায় এবার সরাসরি আইন বদলে ফেলার চিন্তা করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই তা কার্যকরী হবে। চেন টেনে গাড়ি দাঁড় করানো ভারতীয় রেলের ১৪১ ধারায় জামিন অযোগ্য অপরাধ। এটাকেও বদলে ফেলার চিন্তা করা হয়েছে। কারন, যাত্রার সময়ে অনেকে বিপদে পড়ে ট্রেনের চেন টানতে বাধ্য হন। এটাকেও ‘কারেকশনাল সেকশনে’ আনার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

২৯টি আইনের মধ্যে ২৩টি আইন বদলে ফেলা হবে। ১০০ টাকা স্পট ফাইন নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হবে দোষীদের। ভিক্ষা করা রেল আইনের ১৪৪(২) ধরা, নির্ধারিত জরিমানা দু’ হাজার টাকা। ধূমপান ১৬৭ ধারায় অপরাধ। ১০০ টাকার স্পট ফাইনে এদের ছেড়ে দিলে হয়রানি থেকে মুক্ত হওয়ার পাশাপাশি রেলের ঘরে আয় আসবে বলে মনে করেছে রেল। ছ’টি ধারা জামিন অযোগ্য যার মধ্যে ১৪১ চেন পুলিং সংশোধন করার পরিকল্পনা রয়েছে। বাকি পাঁচটি ১৪৩ টিকিটের দালালি, ১৫৪ যাত্রী সুরক্ষায় বাঁধা, ১৬০ লেবেল ক্রসিং ভাঙা বা জোর করে খোলা, ১৬৪ জ্বলানশীল পদার্থ ট্রেনে আনা ও ট্রেন অবধের মতো অপরাধ ১৭৪ ধরা মতে জামিন অযোগ্য। যাত্রী থেকে নিরপরাধ মানুষের হয়রানি ও বেআইনি ভাবে অর্থ হাতানোর পদ্ধতি রুখতে এই আইনি বদল আনতে চলেছে রেল।

[আরও পড়ুন: শব্দের চেয়ে ছ’গুণ জোরে ছুটবে ভারতীয় ক্ষেপণাস্ত্র, সফল হাইপারসনিক পরীক্ষা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement