BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আনলক ওয়ান: ৭ রাজ্যের অনুমতি নিয়ে ফ্রেট করিডরের কাজ শুরু করল রেল

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 12, 2020 2:23 pm|    Updated: June 12, 2020 2:23 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: লকডাউনের জেরে আটকে থাকা ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডরের (DFC) কাজ শুরু করল রেল। করোনার মহামারীর আবহে দেশজুড়ে কড়া বিধিনিষেধ থাকে থমকে ছিল রেলের সবচেয়ে বড় প্রকল্প এই করিডর ও স্টেশন পুনঃনির্মাণের কাজ।

[আরও পড়ুন: ভারতে ‘লোন উলফ’ হামলার ছক, বাংলাদেশি ধর্মগুরুদের সাহায্য নিচ্ছে আল কায়দা]

DFC-র এমডি একে সাচন জানিয়েছেন, এই প্রকল্পের অন্তর্গত সাতটি রাজ্যের ৫৭টি জেলায় করিডর নির্মাণের কাজ চলছে। কোভিড পরিস্থিতিতে রাজ্যগুলির সহযোগিতা চাওয়া হয়েছিল। আনলক ওয়ান শুরু হওয়ায় ইতিমধ্যেই ৪৭টি জেলা কাজ করার জন্য অনুমতি দিয়েছে। কন্টেনমেন্ট ১০টি জেলাও খুব শীঘ্রই অনুমতি দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের গাইডলাইন মেনে কাজ শুরু হয়েছে। বহু কর্মী বাড়ি চলে গেলেও হাতে পনেরো হাজার কর্মী রয়েছে ডিএফসির।

রেল সূত্রে খবর, এই প্রকল্পের তিন হাজার কিলোমিটার লাইন বসানোর কাজ হবে। যা দিয়ে দ্রুত গতির মালগাড়ি চলবে। পাঞ্জাবের লুধিয়ানা থেকে বাংলার ডানকুনি, মুম্বইয়ের জহরলাল নেহেরু পোর্ট থেকে নবি মুম্বই হয়ে উত্তরপ্রদেশের দাদরি পর্যন্ত ১৫০৪ কিলোমিটার, বরদা-আহমেদাবাদ-পালানপুর-ফুলওয়ারি ১৮৫৬ কিলোমিটার লাইন বসবে এই করিডরের জন্য। ডিএফসির জন্য ২০০৬ সালে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছিল। প্রকল্পে ৮১,৪০০ কোটি টাকা অনুমোদিত হয়েছিল। কাজটি দ্রুততার সঙ্গে চলবে বলে একে সচান আশা প্রকাশ করেন। এদিকে  উন্নয়নের জন্য ৪টি স্টেশনকে বেছে নেওয়া হয়েছে। স্টেশনগুলির সংলগ্ন এলাকাগুলির উন্নতি ঘটানো হবে। এজন্য জমি লিজ দেওয়া হবে। ছোট শহরগুলির উন্নতি ঘটানোর লক্ষে বিভিন্ন ভাবে সংযুক্তি ঘটানো হবে বলে বোর্ড সূত্রে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: উর্ধ্বমুখী দেশের করোনা গ্রাফ, উদ্বেগ অনেকটাই বাড়িয়ে আক্রান্ত ৩ লক্ষ ছুঁইছুঁই]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement