BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ১ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে হাজতে ভাইপো, থানায় গিয়ে ধরনা বিধায়ক পিসির

Published by: Biswadip Dey |    Posted: October 19, 2021 4:48 pm|    Updated: October 19, 2021 5:29 pm

Rajasthan MLA stage dharna in police station against arrest of nephew for drunk driving। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভাইপোর বিরুদ্ধে মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালানোর অভিযোগ। কিন্তু সেই অভিযোগে কান দিতে নারাজ পিসি। তিনি আবার রাজস্থানের (Rajasthan) বিধায়ক। সরাসরি থানায় এসে হুমকি দিলেন ভাইপোকে না ছাড়লে তিনি লাগাতার ধরনায় বসবেন। তাঁর যুক্তি, ”বাচ্চারা একটু আধটু খেতেই পারে।” এমনই এক ঘটনার ভিডিও ভাইরাল (Viral video) সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়ক মীনা কানোয়ার। তাঁর স্বামী উমেদ সিংও প্রাক্তন বিধায়ক। যোধপুরের রাতানাডা থানায় হাজির হন দম্পতি। উদ্দেশ্য ভাইপোকে ছাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া। তাঁর ভাইপোর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, মদ খেয়ে গাড়ি চালানোর। কিন্তু বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও থানার হেড কনস্টেবল অভিযুক্তকে ছাড়তে রাজি হননি। এরপরই মীনা কানোয়ার ও তাঁর স্বামীর সঙ্গে পুলিশের বচসা চরমে ওঠে।

[আরও পড়ুন: সময় দিলেন স্পিকার, অবশেষে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা বাবুল সুপ্রিয়র]

পরে তাঁরা স্বামী-স্ত্রী থানার মেঝেতেই বসে পড়েন। সেখানে ধরনা শুরু করেন তাঁরা। মীনাকে বলতে শোনা যায়, ”আমি আপনাকে অনুরোধ জানিয়েছি ওঁকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য। ফোনে সেটা রেকর্ডও করে রেখেছি।” এমনকী পুলিশকে হুমকিও দেন তিনি। বলেন, ”গতকাল এই থানারই কয়েকজন অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। আপনারা কি সেটা ভুলে গিয়েছেন?” ভাইপোর পক্ষে তাঁর সওয়াল, ”ছেলেমানুষ, একটু আধটু খেয়েছে তো কী হয়েছে? সব বাচ্চারাই তো অল্পবিস্তর খায়।”

এদিকে অভিযুক্তর গাড়িটিও পুলিশ আটক করেছিল। কিন্তু বাকবিতণ্ডার পরে পুলিশি হেফাজত থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে যান ওই বিধায়ক। ঘটনাটি গত রবিবারের হলেও মঙ্গলবারই তা ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনরা ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। কী করে একজন জনপ্রতিনিধি এমন আচরণ করতে পারেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে মহিলাদের ৪০% টিকিট দেবে কংগ্রেস, ‘ঐতিহাসিক’ সিদ্ধান্ত প্রিয়াঙ্কার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে