BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Republic Day 2022: দিল্লিতে এবারেও প্রধান অতিথি-হীন সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান, থাকছে বহু বিধিনিষেধ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 20, 2022 10:59 am|    Updated: January 20, 2022 11:00 am

Republic Day 2022: No chief guests at this year’s Republic Day celebrations | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus) আবহে এবারেও দেশের সাধারণতন্ত্র দিবসে অনুষ্ঠানে থাকছেন না কোনও বিদেশি অতিথি। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছিল, এবারের সাধারণতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথির আসনে থাকবেন মধ্য এশিয়ার পাঁচ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান। কিন্তু কোভিডের হঠাত বাড়বাড়ন্তের জন্য সে পরিকল্পনা বাতিল করতে হল সরকারকে।

Republic Day 2022: No chief guests at this year’s Republic Day celebrations

চমক দিয়ে এবারের সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে (Republic Day 2022) একসঙ্গে কাজাখস্তান, তাজিকিস্তান, কিরঘিজস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং উজবেকিস্তানের রাষ্ট্রপ্রধানদের একসঙ্গে হাজির করার পরিকল্পনা ছিল মোদি (Narendra Modi) সরকারের। সেটা হলে প্রথমবার একসঙ্গে পাঁচ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান সাধারণতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথির আসনে বসতেন। সাধারণতন্ত্র দিবসের প্যারেডে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি মধ্য এশিয়ার এই নেতাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একটি স্ট্র্যাটেজি বৈঠকও হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বুধবার বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, কোভিডের কারণে এই পাঁচ রাষ্ট্রনেতা ভারতে আসতে পারবেন না। প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে ভারচুয়ালি বৈঠক করবেন তাঁরা। যার অর্থ, এবারেও সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান হবে প্রধান অতিথিবিহীন। গতবছরও কোভিডের কারণে নয়াদিল্লির কুচকাওয়াজে কোনও বিদেশি অতিথি ছিলেন না। প্রথমে ঠিক ছিল ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (Boris Johnson) সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। কিন্তু কোভিডের জন্য তাঁর ভারত সফর বাতিল হয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: দেশে প্রথম! হিন্দু ধর্ম নিয়ে আলাদা ডিগ্রি কোর্স চালু করল বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়]

সার্বিকভাবেই এবারের সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে একগুচ্ছ বিধিনিষেধ পালন করবে সরকার। গতবারও কোভিড আবহেই কুচকাওয়াজ হয়েছিল। সেবারে অতিথি কমিয়ে করা হয়েছিল ২৫ হাজার। এবার সেটা আরও কমিয়ে মোটে ৮ হাজারে নামানো হচ্ছে। সমস্ত অতিথি এবং কুচকাওয়াজে অংশ নেওয়া জওয়ানদের মাস্ক এবং শারীরিক দূরত্ব বিধি মানা বাধ্যতামূলক। সেই সঙ্গে সবার থার্মাল চেকিং করা হবে। আলাদা করে তৈরি হবে কোভিড বুথ। কোনও আমন্ত্রিত করোনার উপসর্গ নিয়ে এলে তাঁদের সেখানেই আইসোলেট করা হবে।

[আরও পড়ুন: ফের সীমা ছাড়াল চিন! অরুণাচলে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে নাবালককে অপহরণ চিনা সেনার]

এবার প্রজাতন্ত্র দিবসের সকালে দিল্লিতে ঘন কুয়াশার পূর্বাভাস আছে। তাই ৭৫ বছরের ইতিহাসে প্রথমবার কুচকাওয়াজ শুরু হবে নির্ধারিত সময়ের আধ ঘণ্টা পরে। অন্য বছর যেটা শুরু হয় সকাল ১০ টায়, সেটাই এবার হবে সকাল সাড়ে ১০টায়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে