BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

টাকা দিয়ে মিথ্যে টিআরপি কেনার অভিযোগ, রিপাবলিক টিভি–সহ ৩ চ্যানেলের বিরুদ্ধে শুরু তদন্ত

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 8, 2020 8:52 pm|    Updated: October 8, 2020 8:57 pm

An Images

‌‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ বিপাকে রিপাবলিক টিভি (Republic TV)। সর্বভারতীয় ইংরেজি এই সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ট্যাম রেটিং পয়েন্ট বা টিআরপি (TRP) কেনার অভিযোগ আনলেন মুম্বই পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং। ইতিমধ্যে তদন্তও শুরু করেছে মুম্বই পুলিশ (Mumbai Police)। শুধু রিপাবলিক টিভি নয়, আরও দু’‌টি টিভি চ্যানেলের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ উঠেছে। সেটিরও তদন্ত চলছে। তিনটি চ্যানেলের প্রতিনিধিকেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠাতে পারে মুম্বই পুলিশ।

এই ঘটনায় জড়িত থাকতে পারে, এরকম দু’‌জন ব্যক্তিকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই তথ্যই জানান পরমবীর সিং। যদিও এর পালটা প্রতিক্রিয়ায় সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন ওই চ্যানেলের এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী। চ্যানেলের তরফ থেকে পালটা বিবৃতিও দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন:‌ ভোটে শিথিল নিয়ম, নির্বাচনের দোরগোড়ায় দাঁড়ানো রাজ্যগুলিতে রাজনৈতিক সভার অনুমতি কেন্দ্রের]

মুম্বই পুলিশের কমিশনার এদিন জানান, সুশান্ত মৃত্যুতে প্রচুর মিথ্যে খবরও ছড়িয়েছে। সেই মিথ্যে খবর ছড়ানোর ঘটনারই তদন্ত চলছে। আর তাতেই উঠে এসেছে এই টিআরপি বাড়িয়ে দেখানোর বিষয়টি। ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দুই ব্যক্তিকে। এর মধ্যে একজন আবার একটি এজেন্সির প্রাক্তন কর্মী। ওই এজেন্সি রেটিং জানার জন্য ‘পিপলস মিটার’ বসাত। ওই দু’‌জনকে জেরা করেও পুলিশের হাতে একাধিক তথ্য এসেছে। মুম্বই পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অভিযুক্ত চ্যানেলগুলির ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খতিয়ে দেখা হবে। নজরে থাকবে বিজ্ঞাপন পাওয়ার জন্য চ্যানেলগুলো অসাধু উপায় অবলম্বনের বিষয়টি। প্রয়োজনে অভিযুক্ত চ্যানেলের শীর্ষ কর্তাদের সম্পর্কে তদন্ত করা হবে। তাঁরা যত সিনিয়রই হোন, ছাড় কেউ পাবেন না। যদি দেখা যায়, কেউ অসাধু পথে অর্থ সংগ্রহ করেছেন, তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট তো সিজ হবেই, পরে আরও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন:‌ বিবেকানন্দের ছবি বাড়িতে ঝোলালে ৩০-৩৫ বছর ক্ষমতায় থাকবে বিজেপি, দাবি ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর]

পরমবীর সিং আরও বলেন, অনেক সময় টাকা দিয়ে রেটিং বাড়িয়ে দেখানো হয়। বিজ্ঞাপন বাবদ বেশি অর্থ পেতেই এই কাজ করে চ্যানেলগুলো। একে জোচ্চুরি বলেই ধরা হবে। এর সঙ্গেই বিস্ফোরক অভিযোগে তিনি যোগ করেন, ‘‌‘‌অনেক পরিবারকে বলা হয়, কয়েকটি চ্যানেল সারাদিন চালিয়ে রাখুন। যে পরিবারের কেউ ইংরেজি জানেন না, তাঁরাও ইংরেজি চ্যানেল চালিয়ে রাখেন। সেজন্য তাঁদের মাসে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকাও দেওয়া হয়।” 

যদিও পালটা প্রতিক্রিয়ায় রিপাবলিক টিভির কর্ণধার অর্ণব গোস্বামী বলেন, “পরম বীর সিং রিপাবলিক টিভির বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনছেন। যেহেতু সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু তদন্তে তাঁর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল রিপাবলিক টিভি, সেই কারণেই এ সব বলছেন তিনি। ওঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করবে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।” অর্ণবের বিবৃতি চ্যানেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে টুইটও করা হয়।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement