BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘সাভারকরকে ভারতরত্ন দেওয়ার বিরোধীদের আন্দামান জেলে পাঠানো হোক’, মন্তব্য সঞ্জয় রাউতের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 18, 2020 3:30 pm|    Updated: January 18, 2020 4:13 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে নিয়ে করা বিতর্কিত মন্তব্যের জের এখনও কাটেনি। কংগ্রেসের পাশাপাশি এই নিয়ে শিব সেনার ওপর চাপ বাড়াচ্ছে NCP। এর মাঝেই ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন শিব সেনার রাজ্যসভা সাংসদ ও মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত। বীর সাভারকরকে ভারতরত্ন দেওয়ার যারা বিরোধিতা করছে। তাদের আন্দামান জেলে পাঠানোর দাবি জানালেন তিনি। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে ফের টানাপোড়েন শুরু হয়েছে মহারাষ্ট্র ডেভেলপমেন্ট ফ্রন্টের অন্দরে!

শনিবার বিনায়ক দামোদর সাভারকরের বিষয়ে মন্তব্য করে গিয়ে সঞ্জয় রাউত দেশের স্বাধীনতার প্রতি তাঁর অবদানকে স্মরণ করার পরামর্শ দেন। বলেন, ‘আমরা সবসময় বীর সাভারকরের জন্য শ্রদ্ধা ও সম্মান দাবি করি। যারা বীর সাভারকরকে ভারতরত্ন দেওয়ার বিরোধিতা করছে। তাদের দুদিনের জন্য সাভারকর যেখানে ছিলেন আন্দামানের সেই সেলুলার জেলে রাখার ব্যবস্থা করা হোক। তাহলেই তাঁর আত্মত্যাগ ও দেশের প্রতি অবদানের কথা ওরা বুঝতে পারবে।’

[আরও পড়ুন: স্রেফ সন্দেহের বশেই গ্রেপ্তারি, CAA বিক্ষোভ রুখতে বিশেষ ক্ষমতা পেল দিল্লি পুলিশ! ]

 

এপ্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সঞ্জয় রাউতের এই মন্তব্যকেই সমর্থন জানান বীর সাভারকরের নাতি রঞ্জিত সাভারকর। শিব সেনা মুখপাত্রকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘সঞ্জয় রাউতের মন্তব্যকে আমি সমর্থন করি। অতীতেও শিব সেনা সাভারকর বিরোধীদের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে। আমি আশা করব, শিব সেনা নেতারা বীর সাভারকরের বিরোধিতা থেকে কংগ্রেস নেতাদের সরিয়ে আনতে পারবে। আমার মনে হয়, সঞ্জয় রাউত এই মন্তব্য করে রাহুল গান্ধীকেই পরামর্শ দিতে চেয়েছেন। কারণ, রাহুল গান্ধীর কথাই কংগ্রেস নেতারা শোনেন। আসলে সঞ্জয় রাউত রাহুল গান্ধীকে সোজাসুজি গোয়া বা আন্দামানে যেতে বলতে পারছেন না। যদিও আমার মনে হয় এটা পরিষ্কার বলে দেওয়াই উচিত।’

[আরও পড়ুন: ‘এবার টার্গেট দুই সন্তান নীতি চালু করা’, সংঘ নেতাদের জানিয়ে দিলেন মোহন ভাগবত ]

 

গত সপ্তাহে ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে মুম্বইয়ের একসময়ের কুখ্যাত ডন করিম লালার সাক্ষাৎ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন সঞ্জয় রাউত। এরপর ফের সাভারকরের ভারতরত্ন প্রসঙ্গে রাহুল গান্ধীকে নাম না করে কটাক্ষ করলেন বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশ। ড্যামেজ কন্ট্রোলের জন্য উদ্ধবপুত্র আদিত্য ঠাকরে আসরে নেমে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করছেন। অতীতের বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে উন্নয়নের কাজ যাতে বন্ধ না হয় সেদিকে সবাইকে খেয়াল রাখার পরামর্শ দিয়েছেন।।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement