BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

১৭ বছর ধরে দিনপ্রতি ২ টাকার চাকরি করছেন এই ব্যক্তি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 26, 2017 6:44 am|    Updated: May 26, 2017 6:44 am

Served at Rs2 per day for 17 years, man approaches Madras High Court

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ১৭ বছর ধরে তামিলনাড়ুর পশুপালন দপ্তরে ঝাড়ুদারের কাজে কর্মরত। কিন্তু এখনও স্থায়ী কর্মীর মর্যাদা পাননি। পাশাপাশি এত বছরে দিনপ্রতি ২ টাকা নিয়েই কাজ করে যাচ্ছিলেন এম রবিকুমার। কিন্তু আর নয়। অবিলম্বে তাঁকে স্থায়ী কর্মীর স্বীকৃতি দিতে হবে। এই দাবিতে মাদ্রাজ হাই কোর্টের দারস্থ হলেন ওই ব্যক্তি। দাবি, অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ী না করে সহকারী পদে নতুন লোক নিচ্ছে দপ্তর। বৃহস্পতিবার ওই ব্যক্তির পিটিশনের ভিত্তিতে বিচারপতি ১৯ এপ্রিলের পর ওই দপ্তরের জারি করা সহকারীর পদে ইন্টারভিউ নেওয়ার যে নির্দেশিকা জারি করেছিল তাতে স্থগিতাদেশ দিয়েছে। মামলাটি বর্তমানে হাই কোর্টে বিচারাধীন।

[আস্ত একটি রেল স্টেশনকে বিয়ে করেছেন এই মহিলা!]

নিজের অভিযোগে ওই ব্যক্তি জানিয়েছেন, ছোট থেকেই গরিব পরিবারে মানুষ তিনি। তাই তিনি বেশি দূর পড়াশুনা করতে পারেননি। পরিবার চালানোর জন্য কাজে ঢুকেছিলেন। ২০০০ সালের ২০ জুলাই থেকে তিনি এরোদে জেলার ভেল্লোদুর এই পশুপালন কেন্দ্রে ঝাড়ুদারের কাজ করছিলেন। তখন থেকে এখনও পর্যন্ত মাইনে মাসে ৬০ টাকা অর্থাৎ প্রতিদিন মাত্র দু’টাকা। রবিকুমার ভেবেছিলেন দু’বছরের মধ্যেই তিনি স্থায়ী কর্মী হয়ে যাবেন। কিন্তু সেটা হয়নি। এরমধ্যেই দপ্তরের তরফ থেকে একটি বিবৃতি জারি করে জানান হয়, দপ্তরে সহকারী পদে নতুন লোক নেওয়া হবে। কিন্তু রবিকুমারকে স্থায়ী করার ব্যাপারে কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। তিনি আরও জানান, দপ্তরে কর্মরত আরও অনেক অস্থায়ী কর্মী রয়েছেন যাঁরা কিনা স্থায়ী হওয়ার যোগ্য ছিলেন। তা সত্ত্বেও দপ্তর এই নতুন লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

[নিরীহদের হত্যাকারীদের সঙ্গে কীসের আলোচনা, আইয়ারকে কটাক্ষ অনুপমের]

যদিও তামিলনাড়ুর ওই পশুপালন দপ্তরটি সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে। দপ্তরের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জের তরফ থেকেই ওই ব্যক্তির নাম সুপারিশ করা হয়নি। অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ী করার পরিবর্তে, নতুন লোক নেওয়া হচ্ছে। এই অমানবিক ঘটনার প্রতিবাদেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন রবিকুমার। তাঁর দাবি, অবিলম্বে তাঁকে ওই দপ্তরের সহকারী পদে যেন নিয়োগ করা হয়।

[‘যতদিন কাশ্মীর অশান্ত, ততদিন বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে কোনও কথা নয়’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে