BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

৬ হাজার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার আরজি খারিজ সুপ্রিম কোর্টে, মিলল না বিদেশি অনুদানের ছাড়পত্র

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: January 25, 2022 4:59 pm|    Updated: January 25, 2022 6:28 pm

Setback In Supreme Court On Foreign Funding Clearance For NGOs | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত ১ জানুয়ারিতে ১২ হাজার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার বিদেশি অনুদানের (FCRA) ছাড়পত্র বাতিল করেছে কেন্দ্র। এই বিষয়ে অন্তর্বর্তীকালীন ছাড়ের আরজি জানিয়ে মামলা হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court)। যদিও আজ শীর্ষ আদালত সেই আরজি খারিজ করে দিল।

বর্তমান মামলাটি করে গ্লোবাল পিস ইনিশিয়েটিভ (Global Peace Initiative) নামের একটি আমেরিকান সংস্থা। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাটির করা আবেদনে জানানো হয়েছিল, করোনা মহামারী (Covid Pandemic) কালে ত্রাণের ব্যবস্থা করছিল বহু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। এখন বিদেশি অনুদান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের ত্রাণ কাজ বাধা প্রাপ্ত হতে পারে। কোভিড পরিস্থিতিতে লক্ষ লক্ষ মানুষকে সাহায্য করছিল এই সংস্থাগুলি। আবেদন করা হয়েছিল, ভারতে যতদিন মহামারীর প্রকোপ রয়েছে ততদিন যাতে মানুষের সাহায্যের কাজ বাধাহীন ভাবে চালিয়ে যেতে পারে সংস্থাগুলি, সেই কথা মাথায় রেখে সুপ্রিম কোর্ট অন্তর্বর্তীকালীন ছাড় দিক বিদেশি অনুদানে।

[আরও পড়ুন: ভোটের আগে প্রতিশ্রুতির বন্যা রাজনৈতিক দলগুলির! নির্বাচন কমিশনকে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের]

এদিন বিচারপতি এ এম খানউইলকর, দীনেশ মাহেশ্বরী ও সি টি রবিকুমারের বেঞ্চ এই বিষয়ে জানায়, সময়ের মধ্যে যে ১১ হাজার ৪৯৪ টি সংস্থা কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছিল, ইতিমধ্যে তাদের ছাড়পত্রের পুনর্নবীকরণ হয়েছে। এদিন আদালত বলে, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলি এই বিষয়ে কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করুক। এই বিষয়ে তারা সিদ্ধান্ত নিক।

[আরও পড়ুন: দু’বছর পর জামিন পেল গরু পাচার কাণ্ডে অভিযুক্ত এনামুল হক]

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৫ ডিসেম্বর মাদারের সংস্থার বিদেশি অনুদানের ছাড়পত্র পুনর্নবীকরণ করা হবে না বলে জানিয়ে দিয়েছিল কেন্দ্র। যার পর সমালোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছিল গোটা দেশে। ঘটনার প্রতিবাদ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও পরে সেই ছাড়পত্র দেওয়া হয়।

এদিকে সংস্থার অ্যাকাউন্ট ফ্রিজ হওয়া নিয়ে মুখ খোলার পর সম্পূর্ণ অন্য কথা জানিয়েছিল মিশনারিজ অফ চ্যারিটি (Missionaries of Charity)। তারা জানায়, কেন্দ্র তাদের কোনও ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বন্ধ করেনি। বরং, সংগঠনের পক্ষ থেকেই সব শাখাকে বিদেশি মুদ্রা সংক্রান্ত লেনদেন বন্ধ রাখতে বলা হয়েছিল। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে