৩১ চৈত্র  ১৪২৭  বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শিশির অধিকারীকে রাজ্যপাল করতে পারে কেন্দ্র! তুঙ্গে জল্পনা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 7, 2021 3:40 pm|    Updated: April 7, 2021 3:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার রাজ্যপাল হতে পারেন কাঁথির সাংসদ তথা বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ শিশির অধিকারী। কেন্দ্র সরকার নাকি ইতিমধ্যেই শিশিরবাবুকে (Sisir Adhikari) কোনও একটি রাজ্যের রাজ্যপাল করার ব্যাপারে ভাবনা চিন্তা শুরু করেছে। এমনটাই দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে। যদিও, এ বিষয়ে সরকারিভাবে কোনও তরফই এখনও মুখ খোলেনি।

শিশিরবাবু দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। সংসদীয় রাজনীতিতে তাঁর অভিজ্ঞতা বিস্তর। একটা সময় কংগ্রেস থেকে তৃণমূল (TMC) হয়ে এখন তিনি বিজেপির দিকে ঝুঁকেছেন। সরকারিভাবে বিজেপির (BJP) পতাকা হাতে না নিলেও স্থানীয় স্তরে বিজেপির হয়ে ভোট চাইতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। তাঁর দুই ছেলে ইতিমধ্যেই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন। তার মধ্যে শুভেন্দু অধিকারী এই মুহূর্তে রাজ্য বিজেপির অন্যতম বড় মুখ। তৃণমূলের সঙ্গে শিশিরবাবুর সংশ্রবও পাকাপাকি ভাবে ছিন্ন হয়েছে। খাতায় কলমে তিনি এখনও তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ। তবে, ভোট মিটলেই রাজ্যের শাসকদল যে বর্ষীয়ান নেতার সাংসদ পদ বাতিলের জন্য আবেদন করবেন, সেটা সকলেরই জানা।

[আরও পড়ুন: ‘ভোট শেষের আগে হাজিরা সম্ভব নয়’, আইকোর মামলায় সিবিআইকে চিঠি পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের]

অশীতিপর শিশিরবাবু এরপর হয়তো আর নির্বাচনে লড়তেও চাইবেন না। সূত্রের খবর, এই পরিস্থিতিতে কাঁথির সাংসদকে সম্মানজনক পুনর্বাসন দিতে পারে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক নাকি বেশ কিছুদিন ধরেই আলোচনা করছে, তাঁকে কোনও একটি রাজ্যের রাজ্যপাল করে দেওয়া নিয়ে। সূত্রের খবর, দেশের পূর্বাঞ্চলে পশ্চিমবঙ্গ লাগোয়া দু’টি রাজ্যে রাজ্যপালের মেয়াদ খুব শীঘ্রই শেষ হয়ে যাবে। সেই দুই রাজ্যের কোনও একটিতে রাজ্যপালের ভুমিকায় পাঠানো হতে পারে শিশিরকে। তবে, এ ব্যপারে শিশিরবাবুর কাছে এখনও কোনও খবর যায়নি। এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তাঁর সাফ কথা, আমি এখনও এ বিষয়ে কিছু জানি না। তাই এ নিয়ে কোনও মন্তব্য করব না।” তবে প্রস্তাব এলে যে তিনি প্রত্যাখ্যান করবেন না, সেটা হয়তো বলে দেওয়াই যায়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement