×

৭ চৈত্র  ১৪২৫  শনিবার ২৩ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচন হতে এখনও কয়েক মাস বাকি৷ তার আগেই পরিষ্কার হয়ে গেল উত্তরপ্রদেশে মহাজোটের সমীকরণ৷ শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে সেরাজ্যে আসন বণ্টন পদ্ধতি ঘোষণা করলেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব ও বিএসপি নেত্রী মায়াবতী৷ কিন্তু, উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, ঘোষিত শত্রু বিজেপিকে আক্রমণ করবেন মায়াবতী এটা স্বাভাবিক ছিল৷ কিন্তু এদিনের যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে কংগ্রেসকেও খোঁচা দিতে ছাড়লেন না বিএসপি নেত্রী৷

[আর্থিক সঙ্গতিহীনদের জন্য বাজারে এল কম খরচে কৃত্রিম হাত]

দু’দলের শীর্ষ নেতা স্পষ্ট জানালেন, ৮০ লোকসভা আসন বিশিষ্ট উত্তরপ্রদেশে ৩৮টি করে আসনে প্রার্থী দেবেন তাঁরা৷ রায়বরেলি ও আমেঠিতে প্রার্থী দেবে না সপা-বসপার মহাজোট৷ সূত্রের খবর, আর দু’টি আসন ছাড়া হতে পারে অজিৎ সিং-এর আরএলডি বা অন্য কোনও ছোট দলকে৷ এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে প্রথম থেকেই বিজেপিকে নিশানা করেছেন মায়াবতী৷ বিএসপি নেত্রী বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহ’র রাতের ঘুম উড়িয়ে দেবে এই মহাজোট৷ পিছন থেকে ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি৷’ যেকোনও ভাবে বিজেপির ক্ষমতায় ফেরা আটকাতে হবে৷’ কেন্দ্রের শাসকদলকে আক্রমণ করেছেন অখিলেশ যাদবও৷ তিনি বলেন, ‘‘দেশে ঘৃনার পরিবেশ তৈরি করছে বিজেপি৷’’ এদিনের বৈঠকে কংগ্রেসকেও খোঁচা দিয়েছেন মায়াবতী৷ তিনি জানান, “কংগ্রেস বা বিজেপি যেই ক্ষমতায় আসুক না কেন, তাতে তাঁদের তেমন কিছু লাভ হবে না৷ ১৯৯৩-এর ২৫ বছর পর আবার একসঙ্গে লড়াইয়ের ময়দানে নামতে চলেছে এসপি-বিএসপি৷ এমতো পরিস্থিতিতে পুরানো সমস্ত দ্বন্দ্ব ভুলে যাওয়ার অঙ্গীকার নিয়েছেন অখিলেশ যাদব৷ কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘‘আমি কর্মীদের বলতে চাই, মায়াবতীজির অপমান নামে আমার অপমান’ প্রধানমন্ত্রিত্বের ক্ষেত্রেও মায়াবতীকে সমর্থন করার কথা ঘোষণা করেছেন অখিলেশ।

[ঘুরে দাঁড়াচ্ছে দেশের অর্থনীতি, সুখবর শোনাল বিশ্বব্যাংক]

উত্তরপ্রদেশের ‘বুয়া-ভাতিজা’ জুটি জোট ঘোষণা করার পরই, টুইটারে তাঁদের স্বাগত জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ অন্যদিকে এই জোটকে আক্রমণ করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷ তিনি জানান, নিজেদের অস্তিত্ব বাঁচানোর জন্য এই জোট করেছে এসপি-বিএসপি৷ পাশাপাশি, রাহুল-মায়াবতী-অখিলেশ-মমতা-চন্দ্রবাবু’কে একজোটে আক্রমণ করেছেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি৷ তিনি বলেন, ‘‘সবার মনে সুপ্ত ইচ্ছা রয়েছে এবং তা নির্বাচনের পর প্রকাশ্যে আসবে৷’’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং