২১ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

ফের একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় বড়সড় বৃদ্ধি, মৃত্যু পেরল সাড়ে চার হাজার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 28, 2020 9:44 am|    Updated: May 28, 2020 9:44 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চতুর্থ দফার লকডাউন শেষের মুখে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসা তো দুরের কথা, প্রায় প্রতিদিনই বাড়ছে সংক্রমণের হার। লকডাউন, সামাজিক দূরত্ব নিয়ে বিধিনিষেধ, কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের যৌথ উদ্যোগ। কোনও কিছুতেই যেন বাদ মানছে না COVID-19। বৃহস্পতিবারও দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় সাড়ে ছ’হাজার। একদিনে মৃত্যু হয়েছে ১৯৪ জন মানুষের।

[আরও পড়ুন: ফের বাড়তে পারে লকডাউনের মেয়াদ! ‘মন কি বাত’-এ ঘোষণার সম্ভাবনা]

বৃহস্পতিবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৫৬৬ জন। এর ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ লক্ষ ৫৮ হাজার ৩৩৩ জন। এদের মধ্যে সক্রিয় অর্থাৎ বর্তমানে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৮৬ হাজার ১১০ জন। এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৬৭ হাজার ৬৯২ জন। আতঙ্কের মধ্যে খানিকটা স্বস্তি দিচ্ছে এই সংখ্যাটাই। সংক্রমণের নিরিখে ভারত বিশ্বের মধ্যে দশম স্থানে থাকলেও, নবম স্থানে থাকা তুরস্কের থেকে অনেক দ্রুতহারে বাড়ছে এদেশের সংক্রমণ। যা রীতিমতো উদ্বেগজনক।

[আরও পড়ুন: পিপিই কিট কেলেঙ্কারির জের, হিমাচল প্রদেশে পদত্যাগ বিজেপি রাজ্য সভাপতির]

এদিকে সংক্রমণের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৯৪ জনের। এই সংখ্যাটা বুধবারের থেকে অনেকটা বেশি। বুধবার দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১৭০ জনের। তার আগের দিন মঙ্গলবার দেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১৪৬ জনের। দেশে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ৪ হাজার ৫৩১ জনের। অর্থাৎ, একদিকে যেমন সংক্রমণের গতি কমছে না অন্যদিকে তেমনি লাগাতার বাড়ছে মৃতের হার। এদিকে এসবের মধ্যেই আগামী সোমবার শেষ হচ্ছে চতুর্থ দফার লকডাউন। তারপর অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ছাড় দেওয়া হতে পারে বলে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে এভাবে ছাড় দেওয়াটা কতটা যুক্তিযুক্ত তা নিয়ে প্রশ্ন থাকছেই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement