৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্ট জামিন দিলেও জেলেই থাকতে হচ্ছে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে। সিবিআইয়ের দায়ের করা আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় মঙ্গলবার তাঁকে একলক্ষ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন দেয় সুপ্রিম কোর্ট। তবে আগামী ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত ইডি হেফাজতে থাকার পর তিনি মুক্তি পাবেন বলে জানানো হয়। এরপর তদন্তের স্বার্থে তাঁকে প্রয়োজন মতো গোয়েন্দাদের সামনে হাজির হওয়ার নির্দেশও দেওয়া হয়। বিদেশে যেতে হলে আদালতের থেকে অনুমতি নিতে হবে বলেও জানানো হয়।

[আরও পড়ুন: অনৈতিক কাজের অভিযোগ, শীর্ষকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্তে নামল ইনফোসিস]

যদিও বিচারপতি আর ভানুমতী নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশ বর্তমানে কোনও কাজ লাগবে না তাঁর। কারণ, আইএনএক্স মামলায় জামিন পেলেও অন্য মামলাগুলির কারণে জেলে থাকতে হবে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বর্ষীয়ান এই কংগ্রেস নেতাকে। আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর সেপ্টেম্বর মাসের ৩০ তারিখ দিল্লি হাই কোর্টে জামিনের আবেদন করেছিলেন চিদম্বরম। কিন্তু, তা খারিজ হয়ে যায়। মঙ্গলবার বিচারপতি আর ভানুমতীর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ সেই রায় বাতিল করে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জামিন মঞ্জুর করে।

[আরও পড়ুন:দেশজুড়ে ব্যাংক ধর্মঘটের জেরে আজ ব্যাহত এটিএম পরিষেবা, সমস্যায় গ্রাহকরা]

২০০৭ সালে আইএনএক্স মিডিয়াকে বেআইনিভাবে ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন বোর্ডের ক্লিয়ারেন্স পাইয়ে দিয়েছিলেন তত্‍কালীন অর্থমন্ত্রী চিদম্বরম। এই অভিযোগে ১০ বছর বাদে,  ২০১৭ সালের ১৫ মে চিদম্বরমের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের সিবিআই। এরপরই টাকা তছরুপের মামলা করে ইডি। বিষয়টি নিয়ে দু’বছরের বেশি সময় ধরে টানাপোড়েনের পর গত ২১ আগস্ট প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করে সিবিআই। তারপর থেকে তিহার জেলেই বন্দি আছেন ৭৪ বছরের এই প্রবীণ কংগ্রেস নেতা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে আইএনএক্স মিডিয়াতে ৩০০ কোটি টাকা বিদেশি বিনিয়োগ হয়। অনুমোদন দিয়েছিল ফরেন ইনভেস্টমেন্ট প্রোমোশন বোর্ড (এফআইপিবি)। কিন্তু, সেই বিনিয়োগ এফডিআইয়ের নিয়ম মেনে হয়নি বলে তদন্তকারী সংস্থাগুলির দাবি। এর পাশাপাশি মাত্র ৪.৬২ কোটি টাকার বিনিয়োগের অনুমোদন পেলেও আইএনএক্স মিডিয়া শেয়ার বিক্রি করে ৩০৫ কোটি টাকা তোলে বলেও অভিযোগ। এই গোটা প্রক্রিয়ার সময় অর্থমন্ত্রী ছিলেন পি চিদম্বরম।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং