BREAKING NEWS

২  ভাদ্র  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

২০% ফি কমাতেই হবে বেসরকারি স্কুলগুলিকে, কলকাতা হাই কোর্টের রায়ই বহাল শীর্ষ আদালতে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 29, 2020 11:40 am|    Updated: October 29, 2020 11:41 am

Supreme Court issues notice in plea challenging Calcutta HC order directing 20% reduction in private school fees on Wednesday | Sangbad Pratidin

নয়াদিল্লি: জয়ের শেষ হাসিটা হাসলেন অভিভাবকরাই। বেসরকারি স্কুলগুলি ফি বৃদ্ধি করা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের রায়ই বহাল রাখল দেশের সর্বোচ্চ আদালত (Supreme Court)। জানাল, ২০ শতাংশ  ফি কমাতেই হবে বেসরকারি স্কুলগুলিকে।

গত ১৩ অক্টোবর কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta High Court) নির্দেশ দিয়েছিল , চলতি বছরের এপ্রিল মাস থেকে স্কুল না খোলা পর্যন্ত সমস্ত বোর্ডের ১৪৫টি বেসরকারি স্কুল নূন্যতম ২০ শতাংশ ফি (Fees) মকুব করতে হবে। আর কোনওভাবেই বর্তমান এই অর্থবর্ষে ফি বৃদ্ধি করা যাবে না। শুধু তাই নয়। লকডাউনের মধ্যে লাইব্রেরি, ল্যাবোরেটরির মতো যে যে পরিষেবা থেকে পড়ুয়ারা বঞ্চিত থেকেছে, তার জন্য কোনওভাবেই কোনও টাকা নেওয়া যাবে না। পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে পাঁচ শতাংশের মধ্যে লভ্যাংশের হার সীমাবদ্ধ রাখতেও নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাই কোর্ট। আদালত সাফ জানিয়েছিল, কোনও স্কুল ২০২০-২১ অর্থবর্ষে শিক্ষক বা অশিক্ষক কর্মীর বেতন যদি বাড়ায়, তাহলে তা পড়ুয়াদের ফি থেকে নেওয়া যাবে না। এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কয়েকটি স্কুল সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়।

[আরও পড়ুন: দিওয়ালির আগেই সুখবর! ফের গরিবদের সরাসরি অর্থ সাহায্য করতে পারে মোদি সরকার]

সেই মামলায় এদিন হাই কোর্টের নির্দেশকেই বহাল রেখেছে বিচারপতি অশোক ভূষণ, আর সুভাষ রেড্ডি এবং এম আর শাহর বেঞ্চ। তবে ১৩ অক্টোবরের রায়ে কলকাতা হাই কোর্ট এ-ও জানিয়েছিল যে, কোনও অভিভাবক ২০ শতাংশেরও বেশি ফি মকুব করার আবেদন করতেই পারেন। তবে সেই ছাড় তাকে দেওয়া হবে কি না, তা খতিয়ে দেখতে ৩ সদস্যের কমিটি গড়তে হবে। সুপ্রিম কোর্ট অবশ্য এদিন সেই নির্দেশে স্থগিতাদেশ দিয়েছে। প্রসঙ্গত, বারাসাত, মধ্যমগ্রাম, বেহালার মতো জায়গায় একাধিক স্কুলের সামনে বেসরকারি স্কুলগুলির ফি বাড়ানো নিয়ে অবরোধ-বিক্ষোভে সামিল হয়েছিলেন বহু অভিভাবক। তবে এদিনের শীর্ষ আদালতের রায়ে স্বাভাবিকভাবেই খুশিতে উদ্বেল তাঁরা।

[আরও পড়ুন: লজ্জা! ভেন্টিলেশনে থাকা অচেতন যক্ষ্মা রোগীকে ধর্ষণের অভিযোগ স্বাস্থ্যকর্মীর বিরুদ্ধে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে