BREAKING NEWS

২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সুপ্রিম কোর্ট থেকে ‘উধাও’ বিজয় মালিয়া সংক্রান্ত মামলার নথি, পিছিয়ে গেল শুনানি

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 6, 2020 4:52 pm|    Updated: August 6, 2020 5:12 pm

Supreme Court would hear on August 20 the petition filed by Vijay Mallya

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজয় মালিয়া মামলায় নয়া মোড়। আদালত থেকে ‘উধাও’ হয়ে গেল মামলার বেশ কিছু নথি। যার মধ্যে আদালত অবমাননা সংক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court ) রায়ের বিরুদ্ধে মালিয়া যে আবেদন করেছিলেন, তার বেশ কিছু তথ্য ছিল বলে সূত্রের খবর। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ২০ আগস্ট।

২০১৭ সালে বিজয় মালিয়াকে (Vijay Mallya) আদালত অবমাননার মামলায় দোষী সাব্যস্ত করেছিল সুপ্রিম কোর্ট। তার আগেই অবশ্য ঋণখেলাপি মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন লিকার ব্যারন। আদালত মালিয়াকে ব্যাংকগুলির বকেয়া ৯ হাজার কোটি টাকা মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু মালিয়া সেই নির্দেশ না মেনে নিজের ছেলের অ্যাকাউন্টে ৪ কোটি মার্কিন ডলার সরিয়ে ফেলেন। আদালতের নির্দেশ না মেনে এভাবে টাকা সরানোয় ২০১৭ সালের ৯ মে মালিয়াকে আদালত অবমাননার মামলায় দোষী সাব্যস্ত করে শীর্ষ আদালত। গ্রেপ্তারি এড়াতে সেবছরই ১৪ জুলাই সুপ্রিম কোর্টের সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দায়ের করেন কৌশলী মালিয়া। বৃহস্পতিবার বিচারপতি ইউইউ ললিত এবং বিচারপতি অশোক ভূষণের মামলাটি শোনার কথা ছিল। কিন্তু শুনানির সময় দেখা যায় মালিয়ার আবেদন সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি আদালতের রেজিস্ট্রিতে নেই। আইনজীবী আরও খানিকটা সময় চেয়ে নেন, সেই নথি জোগাড় করার জন্য। আগামী ২০ আগস্ট মামলার পরবর্তী শুনানি।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে ধাক্কা খাচ্ছে অর্থনীতি, মেনে নিয়েও রেপো রেট অপরিবর্তিত রাখল RBI]

কিংফিশার বিমানসংস্থার (Kingfisher Airlines) নামে বিজয় মালিয়া ভারতের একাধিক ব্যাংক থেকে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। সেই টাকা না মিটিয়েই দেশ ছাড়েন। এরপরই তাঁকে দেশে ফেরাতে উঠেপড়ে লেগেছে ভারত সরকার। কিন্তু একের পর এক আইনি মারপ্যাঁচে সেই ছক বানচাল করতে সচেষ্ট লিকার ব্যরনও।কখনও তাঁর দাবি, তিনি টাকা ফিরিয়ে দিতে ইচ্ছুক কিন্তু ভারত সরকার সেই টাকা নিয়ে চাইছেন নাষ আবার কখনও বলেছেন, তিনি এতটাই গরিব যে সেই টাকা ফেরত দেওয়ার ক্ষমতা নেই। ইতিমধ্যেই ব্রিটেনের আদালত তাঁকে প্রত্যর্পণে রাজি হয়েছে। কিন্তু তবুও আইনি জটিলতায় ভারতে এখনও ফেরানো যায়নি কিংফিশারের মালিককে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে