BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৫ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গুজরাটে পরিযায়ী শ্রমিককে মারধর! অভিযোগের তির বিজেপি সমর্থকের বিরুদ্ধে

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 8, 2020 7:08 pm|    Updated: May 8, 2020 7:08 pm

Surat man accused for beating migrants and demands money also

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গুজরাটের সুরাটে এক পরিযায়ী শ্রমিককে নির্মমভাবে মারধর করার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। করোনা আবহে সেই শ্রমিকের কাছ থেকে ট্রেনের তিনগুণ ভাড়া চাওয়ারও অভিযোগ ওঠে। রাজ্যের কংগ্রেস নেতৃত্ব অভিযুক্তকে বিজেপির কর্মী বলে চিহ্নিত করলে অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি নেতৃত্ব।

গুজরাট, এককথায় গান্ধীজী ও পরে মোদি ভূম নামেই পরিচিত। সেখানেই কিনা পরিযায়ী শ্রমিককে মারধর করার অভিযোগ উঠল এক বিজেপি কর্মী রাজেশ ভর্মার বিরুদ্ধে। এমনকি গুজরাটে আটকে পড়া ছত্তিশগড়ের শ্রমিকের কাছ থেকে ১ লাখেরও বেশি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে। রাজ্যের বিজেপি কর্মীরা অস্বীকার করলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী হিসেবেই পরিচিত। এমনকি তাঁকে রাজ্যের বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে বিভিন্ন ছবিতেও দেখা গেছে। জানা যায়, বাসুদেব বর্মা নামে এক ব্যক্তি বাড়ি ফেরার জন্য টিকিট কাটতে গেলে রাজেশ বর্মার অনুগামীরা ওই ব্যক্তির থেকে অতিরিক্ত টাকা চায়। সেই শ্রমিক তা দেওয়ার পরিবর্তে ঘটনার প্রতিবাদ করলে তাঁকে রড দিয়ে মারধর করে। এমনকি পাথর ছুঁড়ে মারা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। রাজ্যের কংগ্রেস নেতৃত্ব সেই শ্রমিককে উদ্ধার করে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেই ভিডিওতে বাসুদেব বর্মা নামের ব্যক্তি জানান, “অভিযুক্তকে ১ লাখ ১৬ হাজার টাকা দিয়ে বাড়ি ফেরার টিকিট নিতে যাই তখন দেখি তিনি ২ হাজার টাকা দামে এক একটি ট্রেনের টিকিট বিক্রি করছিলেন। আমার থেকে এতবেশি টাকা নেওয়ার প্রতিবাদ করি। তখ ওরা আমায় মারধর করে।” তবে ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই সুরাটের গেরুয়া শিবিরের প্রধান অভিযুক্ত রাজেশ বর্মাকে বিজেপি কর্মী হিসেবে অস্বীকার করে। পরিবর্তে আক্রান্ত পরিযায়ী শ্রমিকের টিকিটের ব্যবস্থা করে দেওয়ার দায়িত্ব দেন আরেক বিজেপি নেতাকে।

[আরও পড়ুন:পাখির চোখ বাণিজ্য সম্পর্ক স্থাপন, করোনা মোকাবিলায় জিনপিংয়ের দরাজ প্রশংসা কিমের]

অভিযুক্ত রাজেশ বর্মার বিরুদ্ধে থানায় মামলা রুজু করে। তবে শুধু বাসুদেব বর্মা নন। ভিন রাজ্যে আটকে দীর্ঘদিন ধরে বাড়ি ছাড়া শতাধিক পরিযায়ী শ্রমিকরা। তাই কখনও পায়ে হেঁটে কখনও সাইকেলে করে বাড়ি ফেরার চেষ্টা করছেন তাঁরা। গত সপ্তাহ থেকেই কেন্দ্রীয় সরকার এই শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগী হয়ে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের ব্যবস্থা করেন।

[আরও পড়ুন:অনলাইনে মদ বিক্রির বিষয়ে রাজ্যগুলিকে ভেবে দেখার পরামর্শ সুপ্রিম কোর্টের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে