BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মোদির বিরুদ্ধে মনোনয়নে ‘বাধা’ তেলেঙ্গানার কৃষকদের, কাঠগড়ায় যোগী প্রশাসন

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 28, 2019 12:27 pm|    Updated: April 28, 2019 12:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে বারাণসীতে মনোনয়ন দিতে গিয়েছিলেন তেলেঙ্গানার ৫০ জন কৃষক। কিন্তু, তাঁদের হুমকি দিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিতে দেননি উত্তরপ্রদেশের গোয়েন্দা  আধিকারিকরা। শনিবার এমনই অভিযোগ জানিয়েছেন তেলেঙ্গানা স্টেট টারমারিক ফার্মাস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট কোটাপাটি নরসিমা নায়ডু।

তাঁর অভিযোগ,  নিজামাবাদ জেলার নিজামাবাদ গ্রামীণ, আরমুর ও বালকোন্ডা বিধানসভার ৫০ জন কৃষক শনিবার নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে মনোনয়ন জমা দিতে বারাণসী পৌঁছান। হলুদের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ও এই অর্থকরী ফসলের জন্য একটি বোর্ড গঠনের দাবিকে জনসমক্ষে আনতেই নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে প্রার্থী হতে চাইছেন তাঁরা। কিন্তু, বারাণসী এসে স্থানীয় কৃষকদের কাছে যখন তাঁদের সমর্থন করার অনুরোধ জানাচ্ছেন। প্রার্থী পদের প্রস্তাবক হওয়ার কথা বলছেন। এমনকী বারাণসী লোকসভা কেন্দ্রের রিটার্নিং অফিসারের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেও ফেলেছেন। অভিযোগ, তখন তাঁদের তা জমা দিতে বাধা দেন উত্তরপ্রদেশের গোয়েন্দা দপ্তরের আধিকারিকরা। নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে তাঁরা যাতে বারাণসী থেকে প্রার্থী না হন তার জন্য হুমকিও দেন।

[আরও পড়ুন- বিনা অনুমতিতে সভা, গম্ভীরের বিরুদ্ধে মামলা কমিশনের]

শুধু তাই নয়, তামিলনাড়ুর কিছু হলুদ কৃষক তাঁদের সমর্থনে বারাণসী আসতে চাইলেও ওই রাজ্যের পুলিশ তাঁদের জেল হেফাজতে পাঠায়। ২৪ ঘণ্টা আটক করে রাখে বলেও অভিযোগ করেন নরসিমা নায়ডু। এত সব কিছুর পরেও প্রশাসনের এই হুমকির কাছে তাঁরা মাথা নত করবেন না বলেই জানিয়েছেন তেলেঙ্গানা স্টেট টারমারিক ফার্মাস অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট।

[আরও পড়ুন-অস্ত্রোপচারেই ক্যানসার থেকে রেহাই, গোমূত্রের তত্ত্ব উড়িয়ে দাবি সাধ্বীর চিকিৎসকের]

এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, “আমরা কারোর বিরোধিতা করতে চাই না। আমরা শুধু আমাদের সমস্যার কথা তুলতে ধরতে চাই। আর চাই হলুদের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কুইন্টাল প্রতি ১৫,০০০ টাকা ও এই সংক্রান্ত একটি বোর্ড গঠন করা হোক। ইউপিএ বা মোদি সরকারের আমলে এই সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও কিছু করা হয়নি। তাই বাধ্য হয়ে আমাদের এই পথ নিতে হয়েছে।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, আগামী সোমবার উত্তরপ্রদেশে মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষদিনে মোদির বিরুদ্ধে মনোনয়ন জমা দেবেন কয়েকজন কৃষক। তাঁদের মধ্যে যেমন রয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের ভেলিগোন্ডা প্রজেক্ট সাধনা সমিতির নেতারা তেমনি রয়েছেন প্রকাশম জেলার পামুরু মণ্ডলের অন্তর্গত বোটলাগুডুর গ্রামের দুই কৃষক কোল্লুর রবিকিরণ শর্মা ও শ্রীনিবাসুলু।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement