৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৫ আষাঢ়  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকদিন আগে গ্যাংওয়ারের ফলে এখন উত্তপ্ত দিল্লি। প্রকাশ্য রাস্তায় দিন কয়েক আগেই চলেছে গুলি। পরিস্থিতি এখনও সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হয়নি। কিন্তু এর মধ্যেই আরও এক হিংসাত্মক ঘটনার সাক্ষী থাকল রাজধানী। সর্বসমক্ষে খুন হলেন টিকটক সেলেব্রিটি মোহিত মোর। বয়স ২৭ বছর। মঙ্গলবার তাঁকে লক্ষ্য করে চলল ১৩ রাউন্ড গুলি।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার বিকেল ৫টা ১৫ মিনিট নাগাদ মোহিত, দিল্লির নাজাফগড়ের ধরমপুরা এলাকায় বন্ধুর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। একটি দোকানে তাদের দেখা হয়। দুই বন্ধু দোকানে দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন। সেই সময়ই গুলিবিদ্ধ হন মোহিত। মোট ১৩টি বুলেট তাঁকে লক্ষ্য করে ছোঁড়া হয়। সাতটি বুলেট তাঁর শরীরকে এফোঁড়-ওফোঁড় করে দেয়। দোকানের ভিতরেই একটি সোফায় এলিয়ে পড়েন মোহিত। সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[ আরও পড়ুন: নৈশভোজেও আলোচনার কেন্দ্র বাংলা, হিংসার নিন্দায় সরব বিজেপির শরিকরা ]

Tik-Tok-celebrity

এক সিনিয়র পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, তিনজন দুষ্কৃতী মোহিতের উপর গুলি চালায়। তারা কালো জ্যাকেট পরে ছিল। মাথায় ছিল কালো হেলমেট। স্কুটিতে চড়ে এসেছিল তারা। ওই এলাকার একটি সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে গোটা ঘটনাটি। সেই ফুটেজ দেখেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, ব্যক্তিগত শত্রুতা ও অর্থনৈতিক কারণেই খুন হতে হয়েছে মোহিতকে। কিন্তু পুলিশের হাতে এখনও কোনও সূত্র এসে পৌঁছায়নি। তাঁর মোবাইলের কললিস্ট খতিয়ে দেখছে পুলিশ। মোহিত ছিলেন টিকটক সেলেব্রিটি। নিয়মিত সোশ্যাল এই মিডিয়ায় অ্যাকটিভ ছিলেন তিনি। তাই পুলিশের অনুমান, সেখান থেকে কোনও সূত্রে পাওয়া যেতে পারে। মোহিতের টিকটক অ্যাকাউন্টও খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে।

টিকটকে প্রায় পাঁচ লাখ ফলোয়ারস রয়েছে মোহিতের। ইনস্টাগ্রামে তাঁর ফলোয়ারের সংখ্যা তিন হাজারেরও বেশি। ফিটনেস ভিডিও শেয়ার করার জন্য বিখ্যাত ছিলেন মোহিত মোর৷

[ আরও পড়ুন: ‘সিংহের গুহায় ঢুকেছিলাম ভুল বোঝাতে’, RSS-এর অনুষ্ঠানে যোগ নিয়ে বললেন প্রণব ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং