১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভবিষ্যতে রাম মন্দির নিয়ে বিতর্ক এড়াতে অভিনব পন্থা, ভিতের নিচে লুকনো থাকবে ইতিহাস

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 27, 2020 6:02 pm|    Updated: July 27, 2020 7:16 pm

Time capsule will be set up under Ram Mandir to avoid controversy

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে চর্চার শীর্ষে রাম মন্দির (Ram Mandir)। কেমন হবে মন্দিরের গঠন? কবে তার ভূমি পুজো হবে? কারা উপস্থিত থাকবেন? এসব নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। দীর্ঘ বিতর্কের পর তৈরি হচ্ছে এই মন্দির। ভবিষ্যতে কোনওরকম বিতর্ক এড়াতে মন্দিরের নিচে টাইম ক্যাপসুল রাখা হবে বলে জানিয়েছেন মন্দিরের ট্রাস্টের এক সদস্য।

এদিকে ভূমি পুজোয় আমন্ত্রিতদের তালিকা নিয়েও বিতর্কের শেষ নেই। সোমবার টুইট করে সেই তালিকা নিয়ে খোঁচা দিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরি। তাঁর কথায়, “রাম মন্দিরের ভূমি পুজোতে সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈকে আমন্ত্রণ জানানো দরকার। না হলে প্রাক্তন বিচারপতির প্রতি অবিচার করা হবে।” অন্যদিকে, ভূমিপুজোর গোটা অনুষ্ঠান দূরদর্শনে সম্প্রচার করা হবে বলে খবর। তার বিরোধিতা করে কেন্দ্রকে চিঠি দিয়েছে সিপিআই। সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে আলোচনার শীর্ষে সেই রামমন্দির (Ram Mandir)।

আগামী ৫ অগস্ট অযোধ্যায় রাম মন্দিরের (Ram Mandir) ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সেই নিয়ে তোড়জোড়ের মধ্যেই টাইম ক্যাপসুলের কথা জানালেন রাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র ট্রাস্টের একমাত্র দলিত সদস্য কামেশ্বর চৌপাল। সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘রাম জন্মভূমি নিয়ে দীর্ঘ সংগ্রাম এবং সুপ্রিম কোর্টে দীর্ঘ আইনি লড়াই, বর্তমান এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যথেষ্ট শিক্ষা দিয়েছে। রাম মন্দিরের নির্মাণস্থলে, মাটির ২০০০ ফুট নিচে একটি টাইম ক্যাপসুল রেখে দেওয়া হবে, যাতে ভবিষ্যতে যদি কেউ মন্দিরের ইতিহাস অধ্যয়ন করতে চান, তখন তিনি যেন রাম জন্মভূমি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যাদি হাতে পান এবং তা নিয়ে নতুন কোনও বিতর্ক মাথাচাড়া না দেয়।’’ মাটির নিচে একটি তামার পাত্রে ওই যাবতীয় তথ্যাদি রাখা থাকবে বলে জানান তিনি।

[আরও পড়ুন : সাচ্চা রামভক্ত! অযোধ্যার ভূমিপুজোয় যোগ দিতে ৮০০ কিলোমিটার হাঁটছেন মুসলিম যুবক]

দীর্ঘ টানাপড়েনের পর গত বছর আগস্টে অযোধ্যার ওই বিতর্কিত জমিতে মন্দির নির্মাণে অনুমতি দেয় সুপ্রিম কোর্ট। মসজিদ নির্মাণের জন্য অন্যত্র পাঁচ একর জমির বন্দোবস্ত করতে বলা হয়। এই রায় ঘোষণা করেছি্লেন সুপ্রিম কোর্টের তৎকালীন প্রধান বিচারতি রঞ্জন গগৈর (Ranjan Gogoi) নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ। এ নিয়ে এদিন কংগ্রেস সাংসদ অধী ররঞ্জন চৌধুরি (Adhir Ranjan Chowdhury) কটাক্ষ করেন। টুইটারে লেখেন, “রামমন্দিরের ভিতপুজো এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু। আমি আয়োজকদের বলব, দেশের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতিকে এই আয়োজনে আমন্ত্রণ জানান। নাহলে তাঁর প্রতি অবিচার করা হবে। কারণ এই মন্দির প্রতিষ্ঠাতার অন্যতম কারিগর তিনি”।

[আরও পড়ুন : তিনটি চূড়া ও বালিপাথরে তৈরি হবে ইতিহাস, কল্পনাকেও হারাবে অযোধ্যার রাম মন্দির]

৫ আগস্ট মন্দিরের ভিতপুজোর গোটা অনুষ্ঠান দূরদর্শনে সম্প্রচার করার কথা। তার বিরোধিতা করে কেন্দ্রীয় তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রককে চিঠি দিল সিপিআই। তাঁদের দাবি, “এই অনুষ্ঠান টিভিতে প্রচার করা হলে দেশের ধর্মনিরপেক্ষ ভাবমূর্তিতে দাগ লাগবে”।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে