১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘গরিব কল্যাণ রোজগার যোজনা থেকে বাংলার শ্রমিকেরা বাদ কেন?’ অভিষেকের নিশানায় মোদি

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 22, 2020 3:21 pm|    Updated: June 22, 2020 3:24 pm

TMC MP Abhisekh Bannerjee ask Narendra Modi on central job scheme

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের জেরে কর্মহীন হয়ে ভিন রাজ্য থেকে ফিরেছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। কাজ হারানো পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কাজের বন্দোবস্ত করতে ইতিমধ্যেই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। গত সপ্তাহেই ‘গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযান’ (Garib Kalyan Rojgar Abhiyan) প্রকল্পের উদ্বোধন করেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই প্রকল্পের জন্য ৬টি রাজ্যকে বেছে নিলেও তাতে নাম নেই বাংলার। এই ইস্যুকে হাতিয়ার করেই এবার প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhisekh Bannerjee)।

“বাংলায় ফিরে আসা ১১ লক্ষ পরিযায়ী শ্রমিককে এভাবে উপেক্ষা করলেন কেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি? গরিব কল্যাণ রোজগার অভিযানে পশ্চিমবঙ্গের নাম নেই কেন? বাংলার মানুষদের এত উপেক্ষা করছেন কেন?” প্রধানমন্ত্রীকে নিশানা করে আজ টুইটে এই প্রশ্ন তুলেই সরব হয়েছেন যুব তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেকের টুইটকে শেয়ার করে রাজ্যসভায় তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়ন ও সরব হয়েছেন। তাঁর প্রশ্ন, “সংসদের অধিবেশনও নেই। তবে এই প্রশ্নের উত্তর কে দেবেন?”

[আরও পড়ুন:জনসমাগম ছাড়াই রথযাত্রার আয়োজন করা যেতে পারে, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল কেন্দ্র]

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ রোজগার যোজনায় কেন বাংলার নাম নেই তাই নিয়ে মোদি-মমতাকে চিঠি লিখে একযোগে আক্রমণ করেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরি (Adhir Ranjan Chowdhury)। দেশের অন্য রাজ্যের মত এই রাজ্যেও লক্ষাধিক শ্রমিকেরা কর্মহীন হয়ে ফিরেছেন। তাঁদেরও এই প্রকল্পে কাজ পাওয়ার অধিকার রয়েছে বলে সোচ্চার হন তিনি। এই মর্মে কেন্দ্রীয় সরকারের উপর মুখ্যমন্ত্রীকে চাপ সৃষ্টি করার অনুরোধও করেন।

[আরও পড়ুন:‘গরিব কল্যাণ রোজগার যোজনা’য় কেন নেই বাংলার নাম? মোদি-মমতাকে চিঠি ‘ক্ষুব্ধ’ অধীরের]

এই কেন্দ্রীয় প্রকল্পের জন্য ৬ রাজ্য- উত্তরপ্রদেশ, বিহার, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ওড়িশা এবং ঝাড়খণ্ড-এর মোট ১১৬ জেলাকে বেছে নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ওই রাজ্যের জেলাগুলির মধ্যে যেখানে পরিযায়ী শ্রমিকের সংখ্যা ২৫ হাজারের বেশি, সেখানে ১২৫ দিনের মধ্যে পরিকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজের বন্দোবস্ত করা হবে বলে জানানো হয়। প্রধানমন্ত্রী মোদীর কথায়, ‘এতদিন নগরোন্নয়নে যুক্ত থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরা এবার গ্রামোন্নয়নের কাজে হাত লাগাবেন।’ লকডাউনের প্রথম পর্ব থেকেই কাজ হারিয়ে ভিন রাজ্যে থেকেছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। টানা দু’মাসব্যাপী এই লকডাউনের পর আনলক ঘোষণা হলেও, এখনও বহু শ্রমিক বেকারত্বের অভিশাপ বয়ে বেড়াচ্ছেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে