২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

হিন্দু ব্যবসায়ীর থেকে জামাকাপড় কেনার ‘অপরাধ’, মুসলিম মহিলাকে হেনস্তা যুবকদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 18, 2020 1:54 pm|    Updated: May 18, 2020 1:54 pm

An Images

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধর্মনিরপেক্ষতা ভারতের ঐতিহ্য। তা সত্ত্বেও বারবার ধর্মীয় হানাহানির ঘটনা সামনে আসছে। এবার সেই একইরকম ঘটনার সাক্ষী কর্ণাটকের দাভাংরে। হিন্দু বিক্রেতার থেকে ইদের জন্য জামাকাপড় কেনায় চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার এক মুসলমান মহিলা। অভিযোগ, তাঁর সম্প্রদায়ের লোকজনই ঘিরে ধরে তাঁর উপর অত্যাচার চালায়। এই ঘটনার ভিডিওই বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। কঠিন সময়েও ধর্মীয় হানাহানির ঘটনায় নেটদুনিয়ায় সমালোচনার ঝড়।

ওই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, এক মহিলা বেশ কিছু জামাকাপড়ের ব্যাগ নিয়ে একটি দোকান থেকে বেরোন। সেই সময় দোকানের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা বেশ কয়েকজন তাঁকে ঘিরে ধরে। কেন তিনি জামাকাপড় কিনলেন, সেই প্রশ্নও করতে থাকে ওই যুবকেরা। উত্তর দিতে জোর করা হয় তাঁকে। এমনকী, ওই মহিলার হাত থেকে জোর করে ব্যাগ কেড়ে নেওয়াও হয়। ঠিক সেই সময় ঘটনাস্থলের কাছে আসে একটি অটো। অন্যান্য যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে ওই অটোতে মহিলাকে করে তোলার চেষ্টাও চলে। যদিও শেষ পর্যন্ত মহিলা ওই অটোতে চড়েছিলেন কি না, ভাইরাল ভিডিওর মাধ্যমে তা স্পষ্ট নয়।

[আরও পড়ুন: খিদের জ্বালায় ট্রেন থেকে নেমে খাবার লুট পরিযায়ী শ্রমিকদের, উদ্বিগ্ন রেল]

এই ঘটনার ভিডিও হু হু করে ভাইরাল হয়ে যায়। নজর কাড়ে প্রায় সকলেরই। ভিডিও দেখার পর সমালোচনায় সরব হয়েছে বিজেপি সাংসদ শোভা কারন্দলাজে। কী হচ্ছে কর্ণাটকে, এই প্রশ্ন তুলে বিস্ময়প্রকাশ করেন তিনি। একজন হিন্দু ব্যবসায়ীর থেকে মুসলমান মহিলা কেন জিনিসপত্র পারবেন না, সেই প্রশ্নও তুলেছেন নেটিজেনদের একাংশ। ভিডিওতে দেখতে পাওয়া হেনস্তাকারীদের চূড়ান্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। পুলিশ জানায়, ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। ওই ভিডিওর সত্যতা আগে খতিয়ে দেখা হবে। পরে মহিলার সঙ্গে কথা বলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: বন্ধ সীমান্ত! পরিযায়ী শ্রমিকদের বাস প্রবেশের অনুমতিতে ‘না’ যোগী সরকারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement