BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

প্রয়াত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান, টুইট করে দুঃসংবাদ দিলেন পুত্র চিরাগ

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 8, 2020 9:03 pm|    Updated: October 8, 2020 9:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রয়াত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ান (Ram Vilas Paswan)। বৃহস্পতিবার টুইট করে এই খবর সংবাদমাধ্যমে জানান তাঁর পুত্র চিরাগ পাসওয়ান। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন লোক জনশক্তি পার্টির প্রধান রামবিলাস। সংবাদসংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন ৫৭ বছরের বিহারের সমস্তিপুরের সাংসদ। 

[আরও পড়ুন: ভোটে শিথিল নিয়ম, নির্বাচনের দোরগোড়ায় দাঁড়ানো রাজ্যগুলিতে রাজনৈতিক সভার অনুমতি কেন্দ্রের]

বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন লোক জনশক্তি পার্টির প্রধান রামবিলাস। উল্লেখ্য, অটলবিহারী বাজপেয়ীর আমল থেকেই একাধিক মন্ত্রিত্ব সমলেছেন তিনি। কেন্দ্রের শাসক পালটালেও রাজনৈতিক বিচক্ষণতার দরুন শিবির পালটে মন্ত্রিত্ব ধরে ছিলেন তিনি। সদ্য বিহার ভোট নিয়ে কেন্দ্রের শাসকদল ও রাজ্যের শরিকদল বিজেপির সঙ্গে মতবিরোধ দেখা দেয় তাঁর পার্টির। তারপরই বিধানসভা নির্বাচনে ‘একলা’ চলার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসওয়ানের দল লোকজনশক্তি পার্টি (LJP)। রবিবার সংসদীয় দলের বৈঠকে এনডিএ (NDA) ছাড়ার সিদ্ধান্তে শিলমোহর দিয়েছেন এলজেপি নেতা চিরাগ পাসওয়ান। তবে সূত্রের খবর, বিজেপির সঙ্গে আসন সমঝোতা বজায় রাখছেন তিনি। তাছাড়া জাতীয় স্তরে যে বিজেপির সঙ্গে সমঝোতা বজায় থাকছে, সেকথা সরকারিভাবেও জানানো হয়েছে এলজেপির তরফে।

[আরও পড়ুন: টাকা দিয়ে মিথ্যে টিআরপি কেনার অভিযোগ, রিপাবলিক টিভি–সহ ৩ চ্যানেলের বিরুদ্ধে শুরু তদন্ত]

১৯৬৯ সালে রাজনীতির ময়দানে সংযুক্ত সোশ্যালিস্ট পার্টির হয়ে রাজনীতির ময়দানে নামে তিনি। ওই বছরই বিহার বিধানসভায় নির্বাচিত সদস্য হিসেবে প্রবেশ করেন তিনি। ১৯৭৪ সালে লোকদল স্থাপনা হওয়ার পর সেখানে যোগ দেন তিনি। ১৯৭৭ সালে জনতা পার্টির হয়ে হাজিপুর কেন্দ্র থেকে লোকসভা সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি। ইন্দিরা গান্ধীর আমলে জরুরি অবস্থার অন্যতম বিরোধী মুখ ছিলন তিনি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement