BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হেডফোন থাকায় কানে পৌঁছল না শব্দ, কিশোরীকে গভীর বনে টেনে নিয়ে গেল চিতাবাঘ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 8, 2020 5:59 pm|    Updated: June 8, 2020 8:53 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কানে হেডফোন লাগিয়ে গান শোনার মাশুল দিতে হল অষ্টম শ্রেণির এক কিশোরীকে। তাকে টেনে নিয়ে গেল এক চিতাবাঘ। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরাখণ্ডের নৈনিতাল জেলার রামনগর এলাকায়। রবিবার বনবিভাগের তরফে এই খবর জানানো হয়েছে।

অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রীর নাম মমতা। রামনগরের বাইলপাড়া ফরেস্ট রেঞ্জের আওতাধীন চুনাখান এলাকার বাসিন্দা সে। শনিবার সন্ধ্যায় বাড়ি সামনে একটি খালের পাড়ে বসে গান শুনছিল সে। কানে গোঁজা ছিল হেডফোন। হঠাৎ একটি চিতাবাঘ তাকে আক্রমণ করে। আচমকা আক্রমণ কোনওভাবেই আত্মরক্ষার সুযোগ পায়নি সেই কিশোরী। তাকে বনে টেনে নিয়ে যায় চিতাটি। পরে ওই কিশোরীর দেহ কাছের একটি ঝোপ থেকে উদ্ধার করা হয়। রামনগরের বাইলপাড়া ফরেস্ট রেঞ্জের অফিসার সন্তোষ পান্থ বলেছেন, “গ্রামবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়েই আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। ঘটনাস্থল থেকে একটি হেডফোন ও একটি চিরুনি পাওয়া গিয়েছে। আক্রান্ত কিশোরী কানে হেডফোন লাগিয়েছিল। সম্ভবত সেই কারণে চিতাবাঘের শব্দ সে শুনতে পায়নি।”

[ আরও পড়ুন: ছ’মাসে কাশ্মীরে খতম ৯৩ জেহাদি, জঙ্গি নিধনে বিরাট সাফল্য যৌথবাহিনীর ]

এই নিয়ে গত এক মাসে কুমায়ুনে ৮ জন চিতার শিকারে পরিণতত হয়েছেন। পান্থ জানিয়েছেন, চিতাটি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। যেখানে সে কিশোরীর উপর হামলা চালিয়েছিল, সেখানে সে আবার ফিরে আসে। কিন্তু তাকে দেখে গ্রামবাসীরা চিৎকার শুরু করে। ফলে এটি বনে পালিয়ে যায়। তবে যে জায়গায় ঘটনাটি ঘটেছিল তার কাছে দুটি খাঁচা এবং সাতটি ক্যামেরার রাখা হয়েছে। চিতাটিকে ধরতে খাঁচার জায়গা এবং অবস্থান পরিবর্তন করা হবে। তবে শনিবার সন্ধ্যায় গ্রামবাসীরা চিৎকার জুড়ে না দিলে পশুটি খাঁচায় আটকা যেত বলে জানান পান্থ। রবিবার ময়নাতদন্তের পর ওই কিশোরীর দেহ তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বনবিভাগের তরফে তার পরিবারের জন্য তিন লক্ষ টাকা মঞ্জুর করা হবে। এখন পর্যন্ত তার পরিবারকে ৯০ হাজার টাকার একটি চেক তুলে দেওয়া হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: প্রতিরক্ষায় ‘আত্মনির্ভর’ হবে ভারত, আসছে ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ যুদ্ধবিমান ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement