৩১ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ১৭ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩১ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ১৭ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাথুরাম গডসেকে নিয়ে কমল হাসানের মন্তব্য দেশজুড়ে বিতর্কের ঝড় তুলেছে। আর এই ঝড়ে টলে গিয়েছে কমলের খুঁটি। তাই এখন নিজের পিঠ বাঁচাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন মাক্কাল নিধি মাইয়ম দলের প্রতিষ্ঠাতা। বলেছেন, তাঁর মন্তব্য ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। তিনি শুধু ইতিহাসটুকুই তুলে ধরেছেন। তার উপর রং চড়িয়ে তিলকে তাল করার কোনও মানে হয় না বলে জানিয়েছেন অভিনেতা-রাজনীতিবিদ।

তামিলনাড়ুর আরাভাকুরুচিতে রবিবারের জনসভায় কমল হাসান বলেন, “মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় এসেছি বলে আমি একথা বলছি না৷ আমি একথা বলছি কারণ আমি গান্ধীজির মূর্তির সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছি৷ স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী হল হিন্দু৷ এবং তার নাম নাথুরাম গডসে৷” কমল হাসানের মন্তব্য নিয়ে এই বিতর্কের পর টনক নড়ে অভিনেতার। বুধবার নিজেরই করা রবিবারের সেই মন্তব্যে ব্যাখ্যা দেন তিনি। এদিন মাদুরাইয়ের কাছে তিরুপুরানকুন্দ্রামে উপনির্বাচনের প্রচারে তিনি বলেন, “আমি আরাভাকুরুচির সভায় যা বলেছি, তাতে ওরা রেগে গিয়েছে। কিন্তু আমি যা বলেছি তা ঐতিহাসিক সত্য। তোলপাড় করার জন্য কোনও টোপ ফেলিনি।”

[ আরও পড়ুন: পুলওয়ামায় সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষে শহিদ এক জওয়ান, নিকেশ ৩ জঙ্গি ]

এরপরই কমল হাসান বলেন, তিনি যা বলেছেন, সেটিতে হিংসাত্মকভাবে দেখানো হয়েছে। তিনি ‘সন্ত্রাসবাদী’ বা ‘খুনি’ শব্দটি বলে থাকতে পারেন। কিন্তু এর মধ্যে কোনও হিংসা ছিল না। তাঁর মন্তব্যকে বিকৃত করা হয়েছে বলেও অভিযোগ তোলেন কমল হাসান। বক্তব্য থেকে কয়েকটা শব্দ তুলে নিয়ে প্রচার করা হয়। এও বলেন, “ওরা বলছে, আমি হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করেছি। কিন্তু আমার পরিবারে অনেক হিন্দু রয়েছেন। আমার মেয়েও হিন্দুত্বে বিশ্বাসী।”

প্রসঙ্গত, রবিবার কমল হাসানের ওই বিতর্কিত মন্তব্যের পর কারুর জেলার হিন্দু মুন্নাইয়ের সেক্রেটারি কে ভি রামাকৃষ্ণণ অভিনেতার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩এ ও ২৯৫এ ধারায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: প্রচারের চাপে দিশেহারা রবি কিষেণ, মেজাজ হারিয়ে বিজেপি বিধায়ককেই গালিগালাজ ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং