Advertisement
Advertisement

ওয়ানড়ে উপনির্বাচন কি শীঘ্রই? রাহুলের কেন্দ্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা

রাহুল না লড়তে পারলে ওয়ানড় থেকে প্রিয়াঙ্কা বা কানহাইয়াকে চাইছে কংগ্রেস।

What will be the future of Waynad lok Sabha seat after Rahul Gandhi's disqualification as MP | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি

Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:March 25, 2023 3:39 pm
  • Updated:March 25, 2023 3:40 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাহুলের সাংসদপদ খারিজ হওয়ার পর কেরলের ওয়ানড় লোকসভা কেন্দ্র (Lok Sabha Election) এখন জনপ্রতিনিধিহীন। কী হবে ওয়ানড়ের ভবিষ্যৎ? শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা।

নিয়ম অনুযায়ী, কোনও কেন্দ্র জনপ্রতিনিধিহীন হয়ে গেলে ৬ মাসের মধ্যে সেই কেন্দ্রে উপনির্বাচন করতে হয়। সেই হিসাবে গেলে নির্বাচন কমিশনকে চলতি বছরেই ওয়ানড় কেন্দ্রে উপনির্বাচন করাতে হবে। কিন্ত রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, কেন্দ্র সরকার দ্রুত ওয়ানড়ের (Wayanad) উপনির্বাচন সেরে ফেলতে চায়। রাহুল যদি উচ্চ আদালতে নিজের শাস্তি কমিয়ে সাংসদ পদ ফিরে পান, তাহলে সব পরিকল্পনা ভেস্তে যেতে পারে। সেকারণেই তড়িঘড়ি এই কেন্দ্রটিতে উপনির্বাচন ঘোষণা করে দেওয়া হতে পারে। যদিও রাহুলের হাতে বিকল্প থাকছে, আদালতে গিয়ে উপনির্বাচন প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ আনার। যদিও কংগ্রেস এখনও সরকারিভাবে কোনও আবেদন করেনি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: সিভিক ভলান্টিয়ারদের কাজ কী? হাই কোর্টের নির্দেশের পর গাইডলাইন জারি রাজ্য পুলিশের]

এদিকে ওয়ানড় এখন কংগ্রেস এবং সিপিএম (CPIM) কর্মীদের যৌথ আন্দোলনের মঞ্চ হয়ে গিয়েছে। রাহুলের সাংসদপদ খারিজের খবর আসতেই তিরুবনন্তপুরমে বৈঠকে বসে কেরল প্রদেশ কংগ্রেস। কালপেট্টা জেলা কংগ্রেসকে ব্যাপক বিক্ষোভ সংগঠিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়। সেই সঙ্গে বৈঠকে ওয়ানড়ের ভবিষ্যৎ নিয়েও আলোচনা হয় বলে জানা গিয়েছে। দিনকয়েক আগেই রাহুল সেখানে ঘুরে গিয়েছেন। ফের তাঁকে আসার আবেদন জানান হবে। সঙ্গে বোন প্রিয়াঙ্কাকেও আসার আবেদন জানানো হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস। সে ক্ষেত্রে উপনির্বাচন হলে রাহুলের জায়গায় কি প্রিয়াঙ্কাকে সাংসদ হিসাবে চাইছে কেরল কংগ্রেস। কোনও কোনও মহল থেকে কানহাইয়া কুমারের নামও ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: রবিবার দিনভর হাওড়া-বর্ধমান কর্ড লাইনে বন্ধ ট্রেন চলাচল, ভোগান্তির আশঙ্কা]

এদিকে সাংসদ পদ বাতিলের পরও রাহুলকে আক্রমণ করতে ছাড়ছে না বিজেপি। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরেণ রিজিজু কংগ্রেস নেতাকে কটাক্ষ করে শনিবার বলে দিয়েছেন, রাহুল গান্ধী বারবার দেশকে অপমান করছেন। কিন্তু তা বলে কি গোটা দেশের সব গান্ধীকে অপমান করা ঠিক? আরেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ (Ravishankar Prasad) এদিনও বলেছেন, রাহুল গান্ধীকে সব নিয়ম মেনেই বরখাস্ত করা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ