BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আরও বিপাকে ইয়েস ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা, স্ত্রী ও তিন মেয়ের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 9, 2020 5:44 pm|    Updated: March 9, 2020 6:18 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরও বিপাকে ইয়েস ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা। এবার তার স্ত্রী ও তিন মেয়ের বিরুদ্ধে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ দায়ের করল সিবিআই। অভিযোগ, ব্যাংক থেকে বেশকিছু সংস্থাকে মোটা অংকের ঋণ পাইয়ে দেওয়ার বদলে রাণা কাপুরের স্ত্রী ও তিন মেয়ের অ্যাকাউন্টে মোটা টাকা আসত।সোমবারই কাপুর পরিবারের সঙ্গে যোগ রয়েছে এমন সাতটি জায়গায় হানা দেয় সিবিআই কর্তারা। প্রসঙ্গত, রবিবার লন্ডন পালানোর আগে রাণা কাপুরের মেয়ে রোশনি কাপুরকে আটকানো হয়। এদিন ইয়েস ব্যাংকের দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে কয়েকটি নির্মাণ সংস্থার শীর্ষ কর্তা ও রাণা কাপুরের স্ত্রী, তিন মেয়ের বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস জারি করল সিবিআই।

বেশ কিছুদিন ধরে ধুঁকছিল বেসরকারি এই ব্যাংকটি। সম্প্রতি ব্যাংকটির অবস্থা আরও খারাপ হয়। গ্রাহকদের লেনদেন নিয়ন্ত্রণ করা হয়। বিষয়টি সামনে আসতেই ব্যাংকের শেয়ারের দাম হু হু করে পড়তে থাকে। পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ ও রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়া। ব্যাংকের পুনর্গঠনের জন্য নয়া স্কিমও ঘোষণা করেছে RBI। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাংক কর্তাদের বেনিয়মের কথাও সামনে আসে। তদন্তে নামে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এরপরই ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা রাণা কাপুরের বাড়িতে হানা দেয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। শনিবার রাণা কাপুরকে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের মুম্বইয়ের অফিসে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে দীর্ঘক্ষণ জেরার পর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন : ‘আরও পড়াশোনা করতে চাই’, প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবদার ৯৮ বছরের বৃদ্ধার]

জানা গিয়েছে, ইয়েস ব্যাঙ্কে মোট ৪৩০০ কোটি টাকার কেলেংকারি হয়েছে। আগামী বুধবার অবধি রাণা কাপুর এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেটের হেফাজতে থাকবেন বলে খবর। ইডির কৌঁসুলি আদালতে অভিযোগ করেন, রানা কাপুর তদন্তকারীদের সঙ্গে সহযোগিতা করছেন না। অন্যদিকে ইয়েস ব্যাঙ্কের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, তিনি দিবারাত্র সহযোগিতা করেছেন। যদিও তাঁকে ওই সময়ের মধ্যে একটুও ঘুমোতে দেওয়া হয়নি। তাঁর অভিযোগ, ইডি তাঁকে বলির পাঁঠা বানাচ্ছে।

[আরও পড়ুন : ফাঁসি এড়াতে মরিয়া নির্ভয়ার ধর্ষকরা, এবার দিল্লির উপরাজ্যপালের দ্বারস্থ বিনয়]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement