Advertisement
Advertisement
Zomato

নবরাত্রিতে নিরামিষ খাবার অর্ডার করে মিলল আমিষ মোমো! জোম্যাটোর পরিষেবায় ক্ষুব্ধ গ্রাহক

নিরামিষ খাবার ডেলিভারির জন্য আলাদা কর্মী থাকলেও কেন এই বিভ্রাট? বিতর্কের মুখে জোম্যাটো।

Zomato customer gets non veg during Navratri after ordering veg

নিজস্ব চিত্র।

Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:April 16, 2024 9:55 am
  • Updated:April 16, 2024 9:56 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গ্রাহকদের ‘খাঁটি নিরামিষ’ খাবার পরিবেশনের জন্য প্রচুর পদক্ষেপ করা হয়েছিল। কিন্তু সেই জোম্যাটোতেই (Zomato) নিরামিষ খাবার অর্ডার করে আমিষ খাবার পেলেন এক যুবক। তাও আবার নবরাত্রির সময়ে। গোটা ঘটনায় ফের বিতর্কের শিরোনামে উঠে এল জনপ্রিয় ফুড ডেলিভারি অ্যাপটি।

খাবার বিভ্রাটের শিকার হয়েছেন আকাশ গুপ্তা নামে এক ব্যক্তি। সোশাল মিডিয়ায় তিনি জানান, “আমি সম্পূর্ণ নিরামিষাশী। আমি নিরামিষ মোমো অর্ডার করেছিলাম জোম্যাটো থেকে। কিন্তু পেয়েছি আমিষ মোমো। এখন নবরাত্রি চলছে। তার মধ্যে আপনাদের এমন পরিষেবা খুবই বিরক্তিকর। এমন কাজ আপনারা করলেন কীভাবে?” আকাশের এই পোস্ট ভাইরাল হয় সোশাল মিডিয়ায়। তবে তাঁর কাছে ক্ষমা চেয়ে সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করে জোম্যাটো। সমস্যা সমাধানের আশ্বাসও দেয় সংস্থাটি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: সরবজিৎ খুনের মূল অভিযুক্তকে লাহোরে হত্যা করেছে ভারতই! বিস্ফোরক অভিযোগ পাকিস্তানের]

তবে এই পোস্টের পরেই নতুন করে বিতর্কে জড়িয়েছে জোম্যাটো। মাসখানেক আগেই ডেলিভারি পার্টনারদের লাল পোশাকের সঙ্গেই সবুজ পোশাক শুরু করতে চেয়েছিল অ্যাপটি। সংস্থার দাবি ছিল, ১০০ শতাংশ নিরামিষ খাবার ডেলিভারি করবে তারা। এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ নিরামিষ রেস্তরাঁ থেকে খাবার ডেলিভারি করা হবে সবুজ বাক্সে। আমিষ খাবার পরিবেশন করা হয়, এমন কোনও দোকান থেকেও নিরামিষ আনা হবে না। এমনকী বিশেষ ডেলিভারি পার্টনাররা কেবল নিরামিষ খাবারই ডেলিভারি করবেন, তাঁরা কোনও আমিষ রেস্তরাঁতেও ঢুকবেন না। এই ডেলিভারি পার্টনাদের পরনে থাকবে সবুজ পোশাক।

Advertisement

এই ঘোষণার পরেই তুমুল বিতর্কের মুখে পড়ে জোম্যাটো। এই ঘটনা আধুনিক সমাজে শ্রেণি বৈষম্যের কারণ, বলে অভিযোগ তোলার পাশাপাশি এই সিদ্ধান্তে একাধিক সমস্যার কথা তুলে ধরা হয় গ্রাহকদের তরফে। শেষ পর্যন্ত জোম্যাটোর সিইও দীপিন্দর গোয়েল জানান, নিরামিষ খাবারের পরিষেবা দেওয়ার জন্য আমরা আলাদা কর্মী রাখলেও লাল ও সবুজ রংয়ের পোশাক বিভাজনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। কিন্তু নিরামিষ খাবারের অর্ডার দিয়েও গ্রাহকের কাছে কেন আমিষ খাবার পৌঁছল? উঠছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: ফের বিপর্যয় গার্ডেনরিচে, এবার রেল হাসপাতালে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ