BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মানকাডিংয়ের জের, সমর্থকদের রোষের মুখে অশ্বিনের পরিবারও

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 26, 2019 4:05 pm|    Updated: March 26, 2019 4:05 pm

Trolls target Indian spinner Ravichandran Ashwin's wife

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইপিএলের গত এগারোটি মরশুমে যা কখনও হয়নি এবারের টুর্নামেন্টের শুরুতেই সে ঘটনার সাক্ষী থাকলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। ভারতের অন্যতম সফল স্পিনার ম্যাচ জিতেও রাতারাতি ভিলেন হয়ে গেলেন ক্রিকেট মহলের একাংশের। দেশজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে নিয়ে। তিনি যে মানকাডিং করবেন, তা যেন কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তাঁর ভক্তরা। শুধু সমর্থকরাই নন, প্রাক্তন তারকা ও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরাও অশ্বিনের ক্রিকেটীয় স্পিরিট নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন। সমালোচনায় ভরে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়াও। যেখানে অশ্বিনের পাশাপাশি আক্রমণ করা হয়েছে তাঁর গোটা পরিবারকে। রেয়াত করা হয়নি তাঁর সন্তানকেও।

ঘটনার সূত্রপাত সোমবার সোয়াই মান সিং স্টেডিয়ামে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ম্যাচ চলাকালীন। রাজস্থানের ইনিংসের সময় অশ্বিনের ওভারে নন-স্ট্রাইকার এন্ডে ছিলেন জস বাটলার। ঠিক তখনই বল ডেলিভারির আগে উইকেটে বল ঠেকিয়ে দেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক। সঙ্গে সঙ্গে থার্ড আম্পায়ারের ইশারা করেন ফিল্ড আম্পায়ার। তারপরই মাঠের একপ্রান্তের জায়ান্ট স্ক্রিনে ভেসে ওঠে, বাটলার আউট। বল উইকেটে ঠেকানোর আগে একবারও সতর্ক করেননি অশ্বিন। তাই এমন অখেলোয়াড়োচিত আচরণের জন্য সেই মুহূর্তেই অশ্বিনের সঙ্গে বিবাদে জড়ান বাটলার। তবে ক্রিকেটের নিয়ম মেনে তাঁকে প্যাভিলিয়নেই ফিরতে হয়। এই ঘটনাতেই দ্বিধাবিভক্ত ক্রিকেট মহল। তবে ঘরের ছেলে অশ্বিনের চেয়ে বেশি সমর্থন পাচ্ছেন বাটলারই। অশ্বিনের মধ্যে ক্রিকেটীয় স্পিরিটের অভাবই বোধ করছেন অনেকে। আর এই কারণেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর কাজে আকৃষ্ট, বিজেপিতে যোগ দিলেন প্যারা অলিম্পিয়ান দীপা মালিক]

অশ্বিনকে তো বটেই তাঁর আচরণের জন্য কটাক্ষের শিকার হতে হচ্ছে পরিবারকেও। ইনস্টাগ্রামে অশ্বিনের স্ত্রী পৃথীকেও সমর্থকদের রোষের মুখে পড়তে হয়। তাঁর ছবির নিচে অনেকেই কমেন্ট করেছেন, ‘আপনার স্বামী বিশ্বাসঘাতক।’ অন্য একজন লিখেছেন, যেভাবে অশ্বিন মানকাডিং করলেন, তারপর থেকে তাঁর প্রতি আর কোনও সম্মান রইল না। তবে শুধু প্রীতিই নয়, অশ্বিনের দ্বিতীয় সন্তান আধ্যার ছবিতেও অশ্বিনকে তুলোধোনা করা হয়েছে। ক্ষুব্ধ নেটিজেনরা আধ্যার উদ্দেশে লিখেছেন, “তোমার বাবা বিশ্বাসঘাতক। তুমিও বড় হয়ে বাবার মতো হবে।”

তবে নিজের আচরণে একেবারেই অনুতপ্ত নন অশ্বিন। সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেন, “আমি অনুতপ্ত কেন হতে যাব? ব্যাটিং ক্রিজের দিকটা যদি ব্যাটসম্যানের হয়, বোলিং ক্রিজের দিকটা আমার। সেখানে কাউকে আইনবিরোধী সুযোগ নিতে দেন না। আর ক্রিকেটের স্পিরিটের প্রশ্ন উঠছে কোথা থেকে তাও তো জানি না। যা করেছি। আইন মেনে করেছি। আইন যদি প্লেয়ার ব্যবহারই না করতে পারে, তাহলে সেটা তুলে দেওয়াই ভাল।”

[আরও পড়ুন: ক্রিকেটকে কবে বিদায় জানাচ্ছেন? মুখ খুললেন যুবরাজ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে