Advertisement
Advertisement
Kolkata

যজ্ঞের নামে বধূকে যৌন নিগ্রহ ও আর্থিক প্রতারণা! গ্রেপ্তার কলকাতার জ্যোতিষী

দু'দফায় মহিলার থেকে ২ লক্ষ টাকা নিয়েছে অভিযুক্ত।

A astrologer of Kolkata who is accused of molest arrested | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

Published by: Tiyasha Sarkar
  • Posted:March 1, 2022 8:41 pm
  • Updated:March 1, 2022 8:44 pm

অর্ণব আইচ: যজ্ঞের নামে মাদক মেশানো সরবৎ খাইয়ে যৌন নিগ্রহ ও আর্থিক প্রতারণা। প্রতিবাদ করায় বধূর অশ্লীল ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গ্রেপ্তার খাস কলকাতার (Kolkata) এক জ্যোতিষী। আর কারও সঙ্গে এহেন আচরণ করেছে কি না গুণধর, জানার চেষ্টায় পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত ওই জ্যোতিষীর নাম সুভাষ দাস ওরফে শুভাশিস দাস ওরফে অভিষেক। একেক জায়গায় সে একেকটি নাম ব্যবহার করত সে। তার বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তা ও প্রতারণার অভিযোগ করেছে উত্তর কলকাতার বাসিন্দা এক মহিলা। জানা গিয়েছে, বছর চারেক আগে বিয়ে হয়েছিল তাঁর। কিন্তু সন্তান হচ্ছিল না। ফলে সংসারে অশান্তি শুরু হয়। তাই অনেকটা হতাশ হয়েই তিনি জ্যোতিষী সুভাষের কাছে যান। সেই সময় সুভাষ সন্তানধারনের জন্য মহিলাকে কয়েকটি পাথর দেয়। তার জন্য দেড় লক্ষ টাকা নেয় ওই ব্যক্তি। এর পর সুভাষ বধূকে বলে, তারাপীঠে গিয়ে যজ্ঞ করতে হবে। কিন্তু সেখানে স্বামী বা পরিবারের কেউ উপস্থিত হলে হবে না। অনেকটা বাধ্য হয়েই গত জানুয়ারি মাসে গৃহবধূ জ্যোতিষীর সঙ্গে তারাপীঠে যান। তার জন্য আলাদাভাবে ওই মহিলার কাছ থেকে আরও ৫০ হাজার টাকা নেওয়া হয়। তারাপীঠের শ্মশানে নিয়ে গিয়ে যজ্ঞও করা হয়।

Advertisement

[আরও পড়ুন: SLST নিয়োগ দুর্নীতি মামলা: সিবিআই তদন্তের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ, হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে রাজ্য]

অভিযোগ, যজ্ঞের পর গৃহবধূকে একটি হোটেলে নিয়ে যায় সুভাষ। সেখানে তাঁকে মাদক মেশানো ভাঙের সরবৎ খাওয়ানো হয়। এরপরই ওই মহিলা অচেতন হয়ে পড়েন। ওই অবস্থায় জ্যোতিষী তাঁর যৌন নিগ্রহ করে বলে অভিযোগ। সেই ছবি তুলে রাখে নিজের মোবাইলে। হুঁশ ফিরতেই মহিলা বুঝতে পারেন, তাঁর উপর যৌন অত্যাচার চালানো হয়েছে। কিন্তু কলকাতায় ফিরে আসার পরও লজ্জা ও ভয়ে পরিবারের লোকেদের কিছু জানাতে পারেননি। কিছুদিন আগে ফের ওই জ্যোতিষী গৃহবধূকে ডেকে পাঠায়। বলে, ফের একটি যজ্ঞ করতে হবে। তার জন্য এবার গৃহবধূকে যেতে হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারে। গৃহবধূর সন্দেহ হয় যে, ফের তাঁকে নিগ্রহের ছক কষেছে জ্যোতিষী। তিনি যেতে রাজি হননি।

Advertisement

অভিযোগ, সেই সময় আগের হোটেলে তোলা অশ্লীল ছবি দেখিয়ে ব্ল্যাকমেল করতে শুরু করে অভিযুক্ত। সে ওই ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করে দেবে বলে হুমকি দিতে শুরু করে। এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন গৃহবধূ। শেষ পর্যন্ত পরিবারের লোকেদের সহযোগিতায় তিনি চিৎপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। জানা গিয়েছে, ভুয়ো নাম ব্যবহার করত জে্যাতিষী। এমনকী, ভুয়ো পরিচয়পত্র দেখিয়ে হোটেলে ঘর নেয়। এর আগেও সে অন্য কোনও মহিলার সঙ্গে একই ধরনের কুকীর্তি করেছে কি না, তা জানার চেষ্টা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: রবিনসন স্ট্রিট কাণ্ডের ছায়া নিউটাউনে, ছেলে, মেয়ের মৃতদেহ আগলে বসে মা!]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ