২৪ চৈত্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ৭ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

গলা থেকে পেট পর্যন্ত ‘নিপুণ হাতের’ সেলাই! বাগবাজারে উদ্ধার দেহ ঘিরে ঘণীভূত রহস্য

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 25, 2020 4:11 pm|    Updated: February 25, 2020 4:11 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

অর্ণব আইচ: গলা থেকে পেট পর্যন্ত কাটা অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তির পচাগলা দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য বাগবাজার ঘাটে। মঙ্গলবার সকালে ঘাটের কাছে দেহটি দেখতে পান স্থানীয়রা। খবর পেয়ে উত্তর বন্দর থানার পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে। দেহটির যে অংশে সেলাই রয়েছে, তাতে ঘটনার পিছনে বড়সড় অঙ্গ পাচার চক্রের যোগ থাকতে পারে বলে অনুমান তদন্তকারীদের।

জানা গিয়েছে, অন্যান্যদিনের মতোই মঙ্গলবার সকালেও বাগবাজার ঘাটে ভিড় জমিয়েছিলেন অনেকেই। সেই সময়েই ঘাটের পাশে পলিতে কিছু আটকে রয়েছে বলে মনে হয় তাঁদের। কাছে যেতেই তাঁরা বুঝতে পারেন যে, পলিতে আটকে রয়েছে একটি পুরুষের দেহ। তড়িঘড়ি খবর দেওয়া হয় রিভার ট্রাফিক পুলিশ ও উত্তর বন্দর থানায়। তাঁরাই গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে। এরপর দেখা যায় যে, মৃতের গলা থেকে পেট পর্যন্ত সেলাই। স্বাভাবিকভাবেই সেলাইয়ের কারণ নিয়ে বাড়তে শুরু করে ধোঁয়াশা।

[আরও পড়ুন: ল্যাংচার দাম মেটানোর সময় সম্মোহন! বিদেশিদের কারসাজিতে প্রতারিত ব্যবসায়ীরা]

সেলাই দেখে ঘটনার পিছনে অঙ্গ পাচারকারী চক্রের যোগ রয়েছে বলে মনে করছেন তদন্তকারীদের একাংশ। তবে এক পুলিশ আধিকারিকের কথায়, “এমন কিছু অপরাধী হয়েছেন যারা খুনের পর দেহ চিরে ইট, পাথর ভরে সেলাই করে দেয়। যাতে জলে ফেললে দেহ ভেসে না ওঠে।” এই ঘটনার সঙ্গে সেই চক্রের যোগের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তদন্তকারীরা। সেইসঙ্গে চিন্তা বাড়াচ্ছে সেলাইয়ের ধরণও। কারণ, মূলত চিকিৎসকরাই এমনভাবে সেলাই করে থাকেন। তাই পাচারচক্রের যোগ থাকার সম্ভাবনাই বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। ডিসি (বন্দর) সৈয়দ ওয়াকার জানিয়েছেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পরই মৃত্যুর কারণ স্পষ্ট হবে। পাশাপাশি, মৃতের পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: ঘূর্ণাবর্তের জেরে সকাল থেকে বৃষ্টি, দার্জিলিংয়ে শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস]

Advertisement

Advertisement

Advertisement