১৩ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৩ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: কলকাতায় ফের এক কিশোরীকে যৌন নির্যাতনের ঘটনা ঘটল। বাড়ির চারতলার একটি ঘরে আটকে রেখে ওই কিশোরীর উপর অত্যাচার চালানোর অভিযোগ উঠল তার পরিচিত এক যুবকের বিরুদ্ধে। বন্ধ ফ্ল্যাট থেকে বের হওয়ার উপায় ছিল না কিশোরীর। তাই গলার আওয়াজই হয়ে উঠল বাঁচার অস্ত্র। অত্যাচার চলার সময় তারস্বরে চিৎকার করে ওঠে ওই নাবালিকা। তার চিৎকার শুনেই হাজির হয়ে যান বাড়ির মালিক ও তাঁর স্ত্রী। তারপর তাঁরাই উদ্ধার করেন নাবালিকাকে। অভিযুক্তকেও হাতেনাতে ধরে ফেলা হয়। পরে উত্তর কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতার মা। তারপরই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দলীয় কর্মীকে মারধরের অভিযোগ, রত্না চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর বিজেপির]

আমহার্স্ট স্ট্রিট থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত যুবক মধ্য কলকাতার একটি কলেজে চুক্তির ভিত্তিতে কাজ করে। আমহার্স্ট স্ট্রিটে তার দিদির বাড়ি। সেখানে প্রায়ই সে আসে। ওই বাড়িতেই থাকে নির্যাতিতা কিশোরী। রবিবার তাকে বাড়ির চারতলায় ডাকে অভিযুক্ত। আর কিশোরীটি ঘরের ভিতর যাওয়ামাত্রই দরজা ভিতর থেকে বন্ধ করে দেয়। তারপর শুরু করে যৌন নির্যাতন। কিশোরীর পালানোর কোনও উপায় ছিল না। তাই নিজেকে বাঁচাতে প্রচণ্ড জোরে চিৎকার শুরু করে সে।

আচমকা তার চিৎকার শুনে চারতলার অন্য ঘরের বাসিন্দা বাড়ির মালিক ও তাঁর স্ত্রী বুঝতে পারেন যে কিশোরীটি বিপদে পড়েছে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা ছুটে এসে দরজায় ক্রমাগত ধাক্কা দিতে শুরু করেন। যুবক মেয়েটির মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করেও পারেনি। শেষে বাধ্য হয়ে দরজা খুলে পালানোর চেষ্টা করে। কিন্তু, তার আগেই যুবককে ধরে ফেলা হয়। পরে খবর পেয়ে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ এসে যুবকটি থানায় নিয়ে যায়। যৌন নির্যাতনের ফলে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল মেয়েটি। তার চিকিৎসাও করানো হয়। পুরো ঘটনাটির তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: এবারে রেশনে ৫৯ টাকা কেজি দরে মিলবে পিঁয়াজ, ঘোষণা রাজ্যের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং