BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চেতলা থেকে নিউ আলিপুর পর্যন্ত বিকল্প দুটি বেইলি ব্রিজ নির্মাণের কাজ শুরু

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: September 20, 2018 2:16 pm|    Updated: September 20, 2018 2:16 pm

alternative bridge at Majerhat, work starts from today

দীপঙ্কর মণ্ডল: পূর্ব রেলের অনুমতি মিলতেই মাঝেরহাটে স্টেশনে লেভেল ক্রসিং তৈরির কাজে হাত লাগাল পূর্ত দপ্তর ও রেল কর্তারা৷ আজ, সকালে পূর্ত দপ্তরের ইঞ্জিনিয়াররা জমি জরিপ ও চিহ্নিতকরণের কাজে হাত লাগান৷ আগামী দু’মাসের লেভেল ক্রসিং নির্মাণের কাজ শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ তবে, প্রাথমিক ভাবে খাল পারাপারের জন্য পুজোর মুখে রাস্তাটি নির্মাণ করা যায় কি না সেদিকেও নজর নেওয়া হয়েছে৷

[বাগে আনা যাচ্ছে না পেট্রল-ডিজেলের দাম, অব্যাহত জ্বালানি যন্ত্রণা]

লেভেল ক্রসিং নির্মাণে গতি বাড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে মাঝেরহাট ব্রিজ ভাঙার কাজও শুরু হয়েছে৷ বৃহস্পতিবার রেল ও পূর্ত দফতরের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে যান৷ মোমিনপুরের দিক থেকে ব্রিজটি ভাঙা শুরু হয়েছে। টিন দিয়ে ঢেকে কাজ করছেন কর্মীরা। অন্যদিকে বিকল্প রাস্তা নির্মাণের কাজও শুরু হয়েছে। বালির বস্তা ফেলে নিচু জমি ভরাট হচ্ছে।

চেতলা-নিউ আলিপুর পর্যন্ত তৈরি হবে দুটি বেইলি ব্রিজ৷ যতদিন না নতুন সেতু তৈরি হবে ততদিন এই বেইলি ব্রিজ ব্যবহার করতে পারবেন সাধারণ মানুষ৷ পুজোর মুখে দক্ষিণ কলকাতা ও শহরতলির মানুষের যোগাযোগ-সুবিধায় জরুরি ভিত্তিতে দু’টি বেইলি ব্রিজ তৈরি হবে। চেতলা ক্যানাল রোড ও হুমায়ুন কবীর সরণিতে চেতলা খালের উপরেই পাশাপাশি থাকবে এই দুই সেতু। জুড়বে চেতলা-নিউআলিপুরকে। খালের দু’পাড়ে কংক্রিটের ঢালাইয়ের পর দায়িত্ব নেবে গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্স। ১২ দিনের মধ্যে ইস্পাতের এই সেতু তৈরি হয়ে যাবে বলে আশা করছেন প্রশাসনের কর্তারা। খরচ হবে প্রায় দু’কোটি টাকা। দৈর্ঘ্য হবে ৮০ ফুট। ধারণ ক্ষমতা হবে ৯০ টন। যানজট নিয়ন্ত্রণে বড় ভূমিকা নেবে এই দুই সেতু। এগুলির উপর দিয়ে ছোট গাড়িগুলি চলাচল করতে পারবে।

[বঙ্গোপসাগরে আরও গভীর নিম্নচাপ, দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস]

 

মাঝেরহাট সেতুকে পুরোপুরি ভাঙার কাজও এদিন শুরু করে পূর্ত দপ্তর৷ ভাঙতে তিন মাস সময় লাগবে৷ সেতু ও রাস্তার রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বও এবার থেকে প্রস্তুতকারী সংস্থাকে যথাক্রমে পাঁচ বছর ও ২৫ বছরের জন্য নিতে হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তর৷ কেএমডিএ-র ইঞ্জিনিয়াররা ‘ফিটনেস’ যাচাইয়ের পর দুর্গাপুর ব্রিজকে ‘ফিট’ সার্টিফিকেট দিয়েছেন৷ ফলে কেএমডিএ-র ১৫টির মধ্যে পাঁচটি সেতুই আপাতত বিপজ্জনক তকমা থেকে রেহাই পেয়েছে। এদিন বাকি দশটি সেতুর অবস্থা সরেজমিন পরিদর্শনে যান পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম৷ এদিন কালীঘাট সেতুর নিচের অবস্থা ঘুরে দেখেন মন্ত্রী ও ইঞ্জিনিয়াররা৷ পরে বৈঠক করবেন মন্ত্রিগোষ্ঠীর সদস্যরা৷ উল্টোডাঙা উড়ালপুলের জন্য প্রস্তুতকারী সংস্থা ম্যাকিনটস বার্নের জেনারেল ম্যানেজারকে ডেকে রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব নেওয়ার কথা বলা হয়েছে৷ শহরের সেতুগুলির হাল জানতে ইতিমধ্যেই একটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে পূর্ত দপ্তর৷ ৯৮৩০০৩৭৪৯৩ নম্বরে ছবি তুলে সমস্যার কথা জানালে সংশ্লিষ্ট দপ্তর ব্যবস্থা নেবে বলে জানা গিয়েছে৷

[বিবেকানন্দর শিকাগো বক্তৃতা অন্তর্ভুক্ত হবে স্কুলপাঠ্যে, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী]

ছবি: অরিজিৎ সাহা ও পিন্টু প্রধান৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে