৪ আশ্বিন  ১৪২৬  রবিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  দু’জন বাংলাদেশিকে গাড়ির চাকায় পিষে দেওয়ার ঘটনায়  আপাতত পুলিশ হেফাজতেই থাকতে হবে আরসালান পারভেজকে৷ রবিবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে তোলা হয় তাকে৷ সরকারি আইনজীবী চোদ্দদিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার আবেদন জানিয়েছিলেন৷ তবে সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়৷ পরিবর্তে বারোদিনের পুলিশ হেফাজতেই রাখা হবে পারভেজকে৷   

[আরও পড়ুন: প্রাণহানির আশঙ্কা রয়েছে, নিরাপত্তা ফেরত চেয়ে অনুজ শর্মাকে ই-মেল শোভনের]

শুক্রবার রাত বারোটা নাগাদ কালো রংয়ের জাগুয়ারে সওয়ার হয়ে বাড়ি থেকে বেরোয় নামী রেস্তরাঁর মালিকের ছেলে পারভেজ আরসালান৷ ঠিক ১২টা ৫০ মিনিটে তার গাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে পথেই দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়৷ দ্রুত গতির জেরে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলেই প্রাথমিক তদন্তে অনুমান করেছিলেন পুলিশ আধিকারিকরা৷ প্রথমে যদিও সে তত্ত্বে সায় দেয়নি ধৃত আরসালান পারভেজ৷

তবে সিসিটিভি ফুটেজ এবং স্পিডোমিটারের নানা তথ্য খুঁটিয়ে দেখেন তদন্তকারীরা৷ তাতেই পুলিশ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, ময়দানের দিক থেকে লাউডন স্ট্রিট এবং থিয়েটার রোডের সংযোগস্থল পর্যন্ত পৌঁছনোর আগে অবধি একাধিকবার সিগন্যাল ভাঙে পারভেজ৷ প্রথমে ময়দানের দিক থেকে বিড়লা তারামণ্ডলের বাঁদিক দিয়ে জওহরলাল নেহরু রোড, শেক্সপিয়র সরণিতে মিডলটন স্ট্রিট দিয়ে জওহরলাল নেহরু রোডে সিগন্যাল ভাঙে সে৷ বিড়লা প্ল্যানেটরিয়াম থেকে বাঁদিকে ঘুরে থিয়েটার রোড হয়ে কলামন্দির যাওয়ার পথে লাউডন স্ট্রিট এবং থিয়েটার রোডের সংযোগস্থলে সিগন্যালটিও মানেনি আরসালান পারভেজ৷

[আরও পড়ুন: রাতারাতি প্রত্যাহার করা হল শোভনের নিরাপত্তা, রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন]

বেরনোর পর থেকে প্রায় ৮০-৮৫ কিলোমিটার বেগে গাড়ি চালান নামী রেস্তরাঁর মালিকের ছেলে৷ দ্রুত গতির জেরে বেসামাল হয়ে জাগুয়ার নিয়ে মার্সিডিজে ধাক্কা মারে পারভেজ৷ এতটাই জোরে ধাক্কা মারে যে মার্সিডিজ গিয়ে আছড়ে পড়েছে ফুটপাথের পুলিশ কিয়স্কে৷ বৃষ্টি থেকে মাথা বাঁচাতে সেখানেই আশ্রয় নিয়েছিলেন বেশ কয়েকজন পথচারী৷ বিনা মেঘে বাজের মতো নিমেষে জাগুয়ারের চাকা পিষে দেয় এক মহিলা-সহ দু’জনকে৷ এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁদের৷ কাজি মহম্মদ মইনুল আলম এবং ফারাহানা ইসলাম তানিয়া নামে দু’জনকে মৃত বলে জানান চিকিৎসকরা৷ দু’জনেই দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু-বান্ধবী৷ তাঁদের বিরুদ্ধে ৩০৪/২ ধারায় জামিন অযোগ্য মামলা রুজু করেছিল পুলিশ৷ তবে বিভিন্ন তথ্যপ্রমাণ খতিয়ে দেখে সরকারি সম্পত্তি নষ্টের ধারাতেও পারভেজের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং