BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বাংলায় ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের সংবর্ধনার ভাবনা, রাজ্যকে এড়িয়ে রেলমন্ত্রীর সঙ্গে কথা ধনকড়ের

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 3, 2020 8:02 pm|    Updated: May 3, 2020 8:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল’ ট্রেনে করে বাংলায় ফেরা শ্রমিকদের সংবর্ধনা দেওয়ার ভাবনায় সরব রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankar)। এ বিষয়ে ইতিমধ্যে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গেও কথা হয়েছে তাঁর। রাজনৈতিক মহলের অনেকেই মনে করছেন, রাজ্যকে কিছু না জানিয়ে ফের সরাসরি এ বিষয়ে কেন্দ্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা নিয়েও নবান্ন-রাজভবন সংঘাত তৈরি হতে পারে। যদিও এ বিষয়ে এখনও রাজ্য সরকারের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

ভিনরাজ্য থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল‘ ট্রেনও চালু করা হয়েছে। আগামী ৫ মে রাজস্থানের আজমেঢ় থেকে একটি ট্রেন পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আসানসোল হয়ে দুর্গাপুরে আসার কথা। ওই ট্রেনের যাত্রীদের সংবর্ধনা দেওয়ার ভাবনার কথা জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। রবিবার তিনি টুইটে একথা উল্লেখ করেন। এছাড়াও তিনি লেখেন, শনিবারই এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে কথা হয়েছে তাঁর।

পত্রবোমা পাওয়ার পর রবিবার সকালে ফের টুইট করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তৃতীয় পর্যায়ের লকডাউন নিয়ে ভিডিও বার্তা টুইট করেন তিনি। বলেন, “আমরা লকডাউনে তৃতীয় পর্যায়ে পা রাখতে চলেছি। এই সময়টা সকলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। করোনাকে রুখতে লকডাউন মানতেই হবে। সকলে লকডাউন মানছে কি না তা দেখতে হবে রাজ্য সরকারকে।” এদিনের ভিডিও বার্তায় চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, সংবাদকর্মী-সহ অন্যান্য জরুরি পরিষেবা প্রদানকারীদের ধন্যবাদও জানান তিনি। গোটা বিশ্বের তাবড় তাবড় রাষ্ট্রনায়করা যখন করোনা নিয়ে চিন্তিত তখন আশার কথা শুনিয়েছেন রাজ্যপাল। তিনি বলেন, “বরফ গলতে শুরু করেছে, কোভিড-১৯ এর অন্ধকার গুহার শেষে আলোর রেখা আমি স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি।” পাশাপাশি, এদিনের ভিডিও বার্তায় মুখ্যমন্ত্রীর চিঠিতে বিরোধী দলের নেতাদের নিয়ে লেখা মন্তব্যের বিরোধিতা করেন তিনি। তাঁর এমন কথা চিঠিতে লেখা উচিত নয় বলেও জানান রাজ্যপাল।

[আরও পড়ুন: মতভেদ অতীত, হাতে হাত মিলিয়ে ত্রাণ বিলি বিভিন্ন রাজনৈতিক শিবিরের নেতাদের]

এর আগে শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) রাজ্যপালকে একটি চিঠি লেখেন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের আগের ১৪ পাতার চিঠির জবাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শনিবার ১২ পাতার চিঠি লেখেন। তাতে তিনি রাজ্যপালের ব্যবহৃত ভাষা নিয়ে ঘোর আপত্তি তোলেন। সংবিধান তৈরির পর থেকে একজন সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে এধরনের ভাষা মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে কেউ ব্যবহার করেননি বলেও চিঠিতে উল্লেখ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী আরও লেখেন, এসব দেখে আর রাগ হয় না, আক্ষেপ হয়। তারপরেও রাজ্যকে কিছু না জানিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের সংবর্ধনা দেওয়ার ভাবনার কথা শুধুমাত্র রেলমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছেন রাজ্যপাল। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এই ঘটনা নিয়েও আরও প্রকট হতে পারে নবান্ন-রাজভবন সংঘাত।

[আরও পড়ুন: বন্যপ্রাণ হত্যা নয়, ‘শিকার উৎসব’-এ অহিংসার বার্তা অযোধ্যা পাহাড়ের আদিবাসীদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement