১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পড়ুয়াদের বিক্ষোভে মাথা নোয়াচ্ছে না কলকাতা ও সংস্কৃত বিশ্ববিদ্যালয়, অফলাইনেই পরীক্ষার ভাবনা

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 27, 2022 6:28 pm|    Updated: May 27, 2022 6:32 pm

Calcutta University to conduct exams offline despite student protest । Sangbad Pratidin

দীপঙ্কর মণ্ডল: ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনে মাথা নোয়াচ্ছে না কলকাতা ও সংস্কৃত বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। স্নাতক-স্নাতকোত্তরের পরীক্ষা অফলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তই বহাল থাকল। শুক্রবার কলেজ স্ট্রিটে রাস্তায় নেমে আলাদাভাবে দুই প্রতিষ্ঠানের পড়ুয়ারা অনলাইন পরীক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। একইসময়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে কলেজ অধ্যক্ষরা অফলাইন পরীক্ষার পক্ষে মত রেখেছেন। উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ৩ জুন সিন্ডিকেট বৈঠকের পর চূড়ান্ত ঘোষণা হবে। অন্যদিকে সংস্কৃত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারাও অনলাইন পরীক্ষার দাবিতে বিক্ষোভ দেখান। উপাচার্য অনুরাধা মুখোপাধ্যায়কে এই দাবিতে ঘেরাও করে রাখেন বিক্ষুব্ধ পড়ুয়ারা। তবে কলকাতার মতই পড়ুয়াদের দাবির কাছে মাথা নোয়ায়নি কর্তৃপক্ষ।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে (Calcutta University) শুক্রবার সিন্ডিকেট বৈঠক হয়। কলেজের অধ্যক্ষদের সঙ্গেও আলোচনা ছিল। বিভিন্ন কলেজের ছাত্রছাত্রীদের একটি অংশ সকাল এগারোটা নাগাদ কলেজ স্ট্রিটে জড়ো হন। মূল গেট বন্ধ ছিল। ক্ষুব্ধ পড়ুয়ারা দ্বিতীয় গেটের সামনে চলে আসেন। সেই গেটটিও বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। বৈঠক শেষে বেরনোর সময় কলেজ অধ্যক্ষদের গাড়ি ঘিরেও বিক্ষোভ দেখান পড়ুয়ারা। তাদের দাবি সিলেবাস শেষ হয়নি। বেশিরভাগ ক্লাস হয়েছে অনলাইনে। তাই অনলাইনেই নিতে হবে পরীক্ষা। তবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলেজের অধ্যক্ষরা অফলাইনে পরীক্ষার পক্ষেই মত দেন। ৩ জুন সিন্ডিকেট বৈঠকে অফলাইন পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গৃহীত হতে চলেছে।

[আরও পড়ুন: ময়দানের ‘গোলমেশিন’ ক্রোমার জার্সির রং বদল, একই দিনে চার ফুটবলারকে সই করাল টালিগঞ্জ]

অন্যদিকে অনলাইন পরীক্ষার দাবিতে সংস্কৃত কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরাও বিক্ষোভ দেখায়। উপাচার্যকে ঘেরাও করে চলে বিক্ষোভ। তবে এই কপি প্রেসে যাওয়া পর্যন্ত সংস্কত কর্তৃপক্ষ আন্দোলনের চাপে মাথা নোয়ায়নি। বস্তুত, কিছুদিন আগে যাদবপুর ও রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়েও একই দাবিতে আন্দোলন হয়। তবে দুই প্রতিষ্ঠানই নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় থেকে অফলাইনে পরীক্ষা নিচ্ছে।

অনলাইন ও অফলাইন পদ্ধতির ফারাক হল, প্রথমটিতে বাড়িতে বসে বই দেখে পরীক্ষা দেওয়া যায়। দ্বিতীয় পদ্ধতিতে আগের মতো এক কলেজের পড়ুয়াদের অন্য কলেজে গিয়ে খাতায় কলমে পরীক্ষা দিতে হবে। গত দু’বছর কোভিড পরিস্থিতি থাকায় অনলাইনে সেমেস্টার পরীক্ষা নেওয়া শুরু হয়। অতিমারি এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে থাকায় ফের আগের মতো অফলাইন পরীক্ষার পক্ষে সওয়াল করেছেন শিক্ষক ও আধিকারিকরা। যদিও বিদ্যাসাগর, কল্যাণীর মতো কিছু বিশ্ববিদ্যালয় এবারও অনলাইনে পরীক্ষা (Online Exam) নেবে বলে ঘোষণা করেছে। কলকাতা-সংস্কৃতর মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের একটি অংশ সেই নজিরকে সামনে রেখে অনলাইনের দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন।

[আরও পড়ুন: ‘অতিরিক্ত লোভ আর উচ্চাকাঙ্ক্ষাই শেষ করে দিল মেয়েকে’, আক্ষেপ মঞ্জুষার মায়ের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে