BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পুলিশের অনুমতি ছাড়া বিজেপির অভিনন্দন যাত্রা, টালিগঞ্জের মিছিল থেকে গ্রেপ্তার কৈলাস

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 7, 2020 3:30 pm|    Updated: February 7, 2020 4:04 pm

Clashes between BJP Supporters and Police at Abhinandan yatra

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বিজেপির অভিনন্দন যাত্রার অনুমতি ছিল না। তা সত্ত্বেও আজ দুপুরে টালিগঞ্জে মিছিলের সূচনা করেছিলেন এরাজ্যের বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়। সঙ্গে ছিলেন মুকুল রায়ও। আর মিছিল শুরু হতেই পুলিশের বাধার মুখে পড়ে কার্যত রণক্ষেত্র হয়ে উঠল টালিগঞ্জ এলাকা। গ্রেপ্তার করা হল কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়কে। তাঁদের লালবাজারে নিয়ে যাওয়া হয়।

KAILASH-lalbazar

পুলিশের সঙ্গে বিজেপি কর্মী, সমর্থকদের ধস্তাধস্তির জেরে গ্রেপ্তার হলেন বেশ কয়েকজন। তার প্রতিবাদে আবার টালাগঞ্জ ফাঁড়ি থেকে নিউ আলিপুরগামী রাস্তা অবরোধে নামলেন বিজেপি কর্মীরা।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) সমর্থনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চলছে বিজেপির অভিনন্দন যাত্রা। বাংলার বিভিন্ন প্রান্তেও মিছিল করছে রাজ্য বিজেপি। সেই মিছিলে গন্ডগোলের খবরও মিলছে। তবে সম্প্রতি পাটুলি থেকে বাঘাযতীনে বড়সড় অশান্তিই হয়েছে। এবার টালিগঞ্জ থেকে হাজরা মোড় পর্যন্ত মিছিল ঘিরেও উত্তপ্ত হয়ে উঠল। শুক্রবার দুপুরে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র নেতৃত্বে মিছিল শুরু হতেই, তা আটকে দেয় পুলিশ। সেখান থেকেই বাঁধে ধুন্ধুমার। পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতি শুরু হয়ে যায়। পুলিশকে মিছিল নিয়ে বোঝাতে যান মুকুল রায়, কৈলাস বিজয়র্গীয়রা। একদিকে, পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে তাঁর আলোচনা, আরেকদিকে পুলিশ কর্মীদের সঙ্গে বিজেপি সমর্থকদের হাতাহাতি চলতে থাকে। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি।

[আরও পড়ুন: অভিনব উদ্যোগ! বউভাতে উপহারের বদলে আমন্ত্রিতদের দেহদানের আরজি দম্পতির]

অশান্তির জেরে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে টালিগঞ্জ ফাঁড়ির মতো গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। আটকে পড়ে যান চলাচল। পরিস্থিতি ক্রমশ খারাপ হতে শুরু করলে, পুলিশ কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে গ্রেপ্তার করে।

KAILASH-arrest

মুকুল রায়কেও গ্রেপ্তার করা হয়। এছাড়া অভিনন্দন যাত্রায় শামিল বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার-সহ বেশ কয়েকজনকেও পুলিশ ভ্যানে তুলে নিয়ে লালবাজারে যায়। গ্রেপ্তারির পর ক্ষোভ উগরে দেন কৈলাস। তিনি অভিযোগের সুরে বলেন, ”CAA-এর বিরুদ্ধে মিছিল করতে দেওয়া হয়, সমর্থনে বাধা দেওয়া হয়। বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জঙ্গলের রাজত্ব চলছে।” পুলিশের বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগও তুলেছেন কৈলাস বিজয়বর্গী।

[আরও পড়ুন: পুরভোটে গ্ল্যামার না অভিজ্ঞ রাজনীতিক? প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে মতানৈক্য বিজেপির অন্দরে!]

টালিগঞ্জে ঝামেলার মাঝেই ফের খবর মেলে, হাজরাতেও বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। সেখানেও বিজেপি কর্মীরা মিছিলের জন্য প্রস্তুত হচ্ছিলেন। পুলিশ জানায় যে মিছিলের অনুমতি নেই। যা মানতে নারাজ গেরুয়া শিবিরের সমর্থকরা। শুরু হয়ে যায় হাতাহাতি। গ্রেপ্তার হন বেশ কয়েকজন বিজেপি সমর্থক। পরে সেখান থেকেই গ্রেপ্তার করা হয় বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পালকে। তাঁদের সবাইকে নিয়ে যাওয়া হয় লালবাজারে।

Hazra-BJPদেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে