BREAKING NEWS

৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

এনআরসি হবেই, অনুপ্রবেশকারীদের বের করে দেওয়া হবে: কৈলাস বিজয়বর্গীয়

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: September 14, 2019 7:44 pm|    Updated: September 14, 2019 7:44 pm

Kailash Vijayvargiya warns NRC in Bengal again on Saturday

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: ফের এনআরসির পক্ষে সওয়াল করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। শনিবার সল্টলেকে দলের মহিলা মোর্চার এক কর্মশালায় কৈলাস বলেন, “এনআরসি লাগু করব। বেআইনি অনুপ্রবেশকারীদের বাইরে বের করার কাজ আমরাই করব।” ক’দিন আগেই পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি লাগু হচ্ছে, এমনই হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তিনি। এরপর বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা বাংলায় এনআরসির পক্ষে সওয়াল করে চলেছেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন এনআরসির বিরোধিতায় পথে মিছিল করেছেন তখন বিজেপির এই শীর্ষ নেতার ফের নাগরিকপঞ্জির পক্ষে সওয়াল যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে এসে NRC নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর, ফের সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার সিদ্ধান্ত]

কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপ কেন প্রয়োজন ছিল সেটা সাধারণ মানুষের সামনে তুলে ধরতে রাষ্ট্রীয় একতা অভিযান সারা দেশজুড়ে শুরু করেছে বিজেপি। এদিন সেই ৩৭০ ধারা বিলোপ প্রসঙ্গেই সল্টলেকে মহিলা মোর্চার কর্মশালা ছিল। যেখানে কৈলাস ছাড়াও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা, মুকুল রায়, সুব্রত চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন মহিলা মোর্চার সর্বভারতীয় সভানেত্রী বিজয়া রাহাতকর ও রাজ্য সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ও।

কৈলাসের মন্তব্য, কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ হওয়ায় সমস্যা হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তার থেকেও বেশি সমস্যা হচ্ছে কংগ্রেসের। এ প্রসঙ্গেই তিনি বলেন, কারও কারও কাছে দেশ নয় চেয়ার বড়। আর বিজেপি দেশের চিন্তা করে ভোট ব্যাংকের নয়। দিলীপ ঘোষ এদিন পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে সরব হয়েছেন। তাঁর মন্তব্য, কাশ্মীর শান্ত হয়ে গেলেও পশ্চিমবঙ্গ এখনও শান্ত হয়নি। পশ্চিমবঙ্গের অবস্থা কাশ্মীরের থেকেও খারাপ। লকেট চট্টোপাধ্যায়ের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় প্রকল্পের নাম বদলে চালাচ্ছে রাজ্য সরকার।

[আরও পড়ুন: হিন্দি দিবসে ‘এক দেশ এক ভাষা’র পক্ষে সওয়াল অমিত শাহের, সরব বিরোধীরা]

এদিকে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জন্মদিন ১৭ সেপ্টেম্বর। সেই দিনটিকে সামনে রেখে সারা দেশজুড়ে বিভিন্ন সমাজকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ডের মধ্যে দিয়ে সেবা সপ্তাহ কর্মসূচি শুরু করেছে বিজেপি। শনিবার পশ্চিমবঙ্গে এই কর্মসূচির সূচনা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল, দিলীপ ঘোষ। এদিনই আহিরীটোলা ঘাটে চায়ে পে চর্চায় দিলীপ ঘোষের সঙ্গে ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে