Advertisement
Advertisement
CM Mamata Banerjee

Mamata Banerjee: ‘আমাদের লক্ষ্মীর ভাণ্ডার, ওদের কুৎসার ভাণ্ডার’, শপথের বর্ষপূর্তিতে বিজেপিকে তোপ মমতার

এই মুহূর্তে রাজ্যের দেড় কোটির বেশি মহিলা 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার' প্রকল্পের আওতাভুক্ত।

CM Mamata Banerjee attacks BJP at distribution of Laxmir Bhandar Scheme at Netaji Indoor Stadium | Sangbd Pratidin

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত বাংলার নারীদের জন্য 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার' প্রকল্প। নিজস্ব চিত্র।

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 5, 2022 1:32 pm
  • Updated:May 5, 2022 2:17 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জনপরিষেবার উন্নয়নের সামাজিক প্রকল্পের সংখ্যা আরও বাড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তিনি ঘরের মহিলাদের আর্থিকভাবে স্বনির্ভর করার লক্ষ্যে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ (Laxmi Bhandar) প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছিলেন। ক্ষমতায় ফিরেই সেই প্রতিশ্রুতি পূরণ করেছেন। ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ চালু করে মাসে মাসে ঘরের মহিলাদের ৫০০ টাকা করে দেওয়া হচ্ছে সরকারি কোষাগার থেকে। তবে তৃতীয় তৃণমূল সরকারের বর্ষপূর্তিতে এই প্রকল্পের ব্যপ্তি আরও বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার নেতাজি ইন্ডোরের স্টেডিয়াম থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ২০ লক্ষ মহিলার হাতে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে’র প্রাপ্য টাকা তুলে দেওয়ার পাশাপাশি ঘোষণা করলেন, রাজ্যের ১ কোটি ৫১ লক্ষ মহিলা এবার এই প্রকল্পের আওতাভুক্ত হলেন। প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে হাতে পাবেন ঘরের মহিলারা। তপশিলি জাতি ও উপজাতিভুক্ত মহিলাদের জন্য এই অঙ্ক ১০০০ টাকা। 

Mamata Banerjee
‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে’র অর্থ মহিলাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।

গত বছর ঠিক এই দিনেই তৃতীয়বারের জন্য রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার বর্ষপূর্তি বৃহস্পতিবার। এই দিনটির উদযাপনে আজ দিনভর একাধিক কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। নেতাজি ইন্ডোরে নতুন সরকারি প্রকল্পের সম্প্রসারণের পর নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী। তারপর তাঁর যাওয়ার কথা বাইপাসের ধারে নতুন তৃণমূল ভবনে। সেখানে তৃণমূলের (TMC) রাজ্য কমিটির জরুরি বৈঠক, ‘দিদিকে বলো-২’ প্রকল্পের সূচনা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ৬ বছর পর রাজ্যে মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগ, বিজ্ঞপ্তি দিল SSC

দিনের প্রথম কর্মসূচি হিসেবে দুপুরেই জনপরিষেবার কাজটি সেরে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি, এই মঞ্চ থেকে একাধিক ইস্যুতে বিজেপিকেও তোপ দাগলেন তিনি।  বললেন, ”আমাদের সরকার জনগণের সরকার। জনতার জন্য কাজ করে। আমাদের ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ আছে, আর ওদের কুৎসার ভাণ্ডার। সবসময় খালি বাংলা সরকারের নিন্দা।”  সিপিএমের উদ্দেশেও তাঁর তোপ, ”আগে যাঁরা বাম ছিল, আজ তাঁরা সবাই বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন।” এছাড়া বাংলার দুর্গাপুজো ইউনেস্কোর ‘হেরিটেজ’ তকমা পাওয়া নিয়ে ফের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্য সরকারের উদ্যোগেই যে এই সম্মান, তা মনে করেন তিনি। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে ফের দলিত কন্যাকে ধর্ষণ, অপমানে আত্মহননের পথ বাছল নাবালিকা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ