BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘সাবলম্বী হয়ে ওঠার উপাদান বাইসাইকেল’, বিশ্ব সাইকেল দিবসে টুইট মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 3, 2019 4:46 pm|    Updated: June 3, 2019 4:48 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: গোটা বিশ্বের কাছে প্রশংসিত হয়েছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘সবুজ সাথী’ প্রকল্প। স্কুলে যাওয়ার জন্য এক কোটি ছাত্রছাত্রীর হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল সাইকেল। বিশ্ব সাইকেল দিবসের দিন সেই ‘সবুজ সাথী’ প্রকল্পের সাফল্যের কথা তুলে ধরলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার সকালে টুইটে লিখলেন সেকথা।

[আরও পড়ুন : ক্যাম্পাসে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান তোলায় বদলি! কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় সমালোচনা]

টুইটারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লেখেন, “আজ বিশ্ব বাইসাইকেল দিবস। একটি বাইসাইকেল শুধুমাত্র কোনও পরিবহণের মাধ্যম নয়। সাবলম্বী হয়ে ওঠার একটি উপাদান। বাংলার মা-মাটি-মানুষের সরকার তাঁদের ‘সবুজ সাথী’ প্রকল্পে এক কোটি ছাত্রছাত্রীদের বাইসাইকেল প্রদান করেছে। বাড়ি থেকে স্কুল যাদের অনেক দূরে, এই সাইকেল তাদের শিক্ষালয়ে পৌঁছাতে সাহায্য করেছে। ইনফরমেশন সোসাইটি প্রাইজেসের বিশ্ব সম্মেলনে ‘সবুজ সাথী’ প্রকল্পকে ‘চ্যাম্পিয়ন’ ঘোষণা করা হয়েছে। আইটিইউ (ইউনাইটেড নেশনের একটি সংস্থা) এই স্বীকৃতি দিয়েছে সবুজ সাথীকে। সারা পৃথিবীর ১১৪০ প্রকল্পের মধ্যে এই স্বীকৃতি ছিনিয়ে এনেছে সবুজ সাথী।” এই প্রকল্প যে বাংলাকে গোটা বিশ্বের কাছে একটা গর্বের জায়গায় নিয়ে গিয়েছে তা মানছেন প্রশাসনের কর্তারাও।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপ শুরু হতেই কলকাতায় রমরমিয়ে চলছে বেটিং চক্র]

নির্বাচনের পর রাজ্যের প্রশাসনিক কাজে গতি আনতে সোমবার নবান্নে সমস্ত বিধায়কদের নিয়ে বৈঠক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। নির্বাচনের আচরণবিধির কারণে দীর্ঘ চার মাস সরকারের কাজ বন্ধ ছিল। কোথায় কোথায় কোন কাজ আটকে, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতেই এই বৈঠক৷ সঙ্গে প্রশাসনিক কোনও কাজে কীভাবে গতি আনা যায়, কোনও নতুন প্রকল্প আনা যায় কি না, সেসবেও দৃষ্টি দেওয়া হয়েছে৷  লোকসভা ভোটে তৃণমূল কংগ্রেসের আশানুরূপ ফল হয়নি। তাই দলীয় সংগঠনে আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনতে যেমন দলে বার্তা দিয়েছেন, তেমনই সরকারে ও প্রশাসনে আরও গতি আনতে চান মমতা। আগামী ১০ জুন মুখ্যমন্ত্রী বৈঠকে বসতে পারেন রাজ্য প্রশাসনের কর্তাদের নিয়ে। থাকবেন বিভিন্ন দফতরের সচিবরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement