BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিশ্বকাপ শুরু হতেই কলকাতায় রমরমিয়ে চলছে বেটিং চক্র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 3, 2019 9:29 am|    Updated: June 3, 2019 9:29 am

An Images

স্টাফ রিপোর্টার: বিশ্বকাপ শুরু হতে না হতেই খাস কলকাতায় ফের জুয়াড়িদের রমরমা। শহরের বিভিন্ন প্রান্তে চুটিয়ে চলছে জুয়ার কারবার। কখনও তা অনলাইনে আবার কখনও অফলাইনে। এমনই এক বেটিং চক্রের সন্ধান পেল কলকাতা পুলিশ। বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার পরই বেটিং চক্রগুলি সক্রিয় হয়ে উঠছে, পুলিশের কাছে সে খবর আগে থেকেই ছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, এই চক্রের পর্দাফাঁসের উদ্দেশ্যে অভিযান চালায় কলকাতা পুলিশ। সেই অভিযানেই এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দুদার্ন্ত শাকিব-রহিম জুটি, রানের রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ অফ্রিকাকে হারাল বাংলাদেশ]

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত ব্যক্তির নাম সুশীল রাঠি। নিজের বাড়িতে বসেই ক্রিকেট বেটিং করতে গিয়ে ধরা পড়ে যায় ওই যুবক। শনিবার সন্ধ্যায় ক্রিকেট বেটিং করার অভিযোগে লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগের হাতে রবীন্দ্র সরণি থেকে ধরা পড়ে রাজকুমার লিহালা ও অমিতকুমার গুপ্তা নামে দুই যুবক। রবীন্দ্র সরণির একটি বাড়িতে বসেই ক্রিকেট জুয়া চালাচ্ছিল তারা। পুলিশ জানিয়েছে, তাদের গ্রেপ্তার করে জেরা করার পর গোয়েন্দারা জানতে পারেন যে, উত্তর কলকাতা ও মধ্য কলকাতার কয়েকটি জায়গায় চলছে ক্রিকেট জুয়া। সেই সূত্র ধরেই উত্তর কলকাতার বড়তলা এলাকার বি কে পাল অ্যাভিনিউয়ে লালবাজারের গোয়েন্দারা তল্লাশি চালান। হাতেনাতে গোয়েন্দাদের হাতে ধরা পড়ে জুয়াড়ি সুশীল রাঠি। তার ঘর থেকে টিভি, ল্যাপটপ, মোবাইল, ট্যাব, ও ৬ হাজার ৬০০ টাকা উদ্ধার হয়। তাকে জেরা করে শহরে অন্য ক্রিকেট জুয়াড়িদেরও সন্ধান চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘২০ টাকার পকোড়া আনবেন?’, ম্যাচ চলাকালীনই কটাক্ষ পাক ক্রিকেটারকে]

এর আগে আইপিএল চলাকালীনও একই ধরনের বেটিং চক্রের সন্ধান মিলেছিল ভবানীপুরের একটি গেস্ট হাউসে। অবৈধভাবে বড়সড় বেটিং চক্র চালাচ্ছিল তিন যুবক। তাঁরা প্রত্যেকেই বারাণসীর বাসিন্দা। মূলত আইপিএলের ম্যাচ ঘিরে চলত বেটিং। অনলাইনে বেটিং চক্রে টাকা ঢালত জুয়ারিরা। লক্ষ লক্ষ টাকার বেটিং চলতে ওই গেস্ট হাউসে বসেই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement