BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লেভি কম দিতে আয় গোপন করছেন সিপিএম সদস্যরা, রিপোর্ট পেয়ে কঠোর আলিমুদ্দিন

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 23, 2022 1:32 pm|    Updated: June 23, 2022 1:34 pm

CPM members masking income, Alimuddin Street initiates steps | Sangbad Pratidin

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: গণসংগঠনে কাজই করতে চাইছেন না পার্টি সদস্যদের একটা বড় অংশ। তাই কঠোর হল আলিমুদ্দিন (Alimuddin)। প্রত্যেক পার্টি সদস্যের গণসংগঠনে কাজ করা বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশ দিল রাজ্য সিপিএম (CPM)। ছাত্র, যুব, শ্রমিক-সহ বিভিন্ন গণফ্রন্টে কাজ করার ক্ষেত্রে পার্টি সদস্যদের অনীহা রয়েছে বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। তারই ভিত্তিতে পার্টি চিঠিতে জেলা কমিটিগুলিকে এই নির্দেশ দিয়ে সতর্ক করা হয়েছে পার্টির তরফে।

দলীয় চিঠিতে বলা হয়েছে, প্রত্যেক পার্টি সদস্যকে কোনও না কোনও গণফ্রন্টে যুক্ত হয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত সব ক্ষেত্রে অনুসরণ করা হচ্ছে না। গণলাইন কার্যকর করতে গণফ্রন্ট ও তার কার্যধারার বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ। গণফ্রন্টের কার্যধারার প্রাথমিক বিষয়গুলি যেমন গণ সদস্য সংগ্রহ, ইউনিটগুলির সক্রিয়তা, গণসংগঠনগুলির পক্ষ থেকে দাবির ভিত্তিতে সংগ্রাম করা – এগুলির ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে পার্টি সদস্যদের গণসংগঠনের কাজ করার ক্ষেত্রে গুরুতর দুর্বলতা। এই দুর্বলতা দ্রুত অতিক্রম করার কথা বলা হয়েছে। আগামী জুলাই-আগস্ট মাসে রাজ্য কমিটির বৈঠকে এই দুর্বলতা কতটা কাটল, তা পর্যালোচনা করা হবে।

[আরও পড়ুন: ইডির তলবে সাড়া, ছেলেকে কোলে নিয়ে সিজিও কমপ্লেক্সে অভিষেকপত্নী রুজিরা]

তবে পার্টি কর্মীদের এমন মনোভাবে নতুন সংকটে পড়েছে আলিমুদ্দিন। কারণ, গণসংগঠন, বিশেষ করে ছাত্র, যুব, মহিলা, কৃষক, শ্রমিক শাখা শক্তিশালী না হলে সিপিএমের ঘুরে দাঁড়ানো অসম্ভব। গণসংগঠনই পার্টির মূল শক্তি। আর সেই গণসংগঠন পরিচালনায় প্রধান দায়িত্ব থাকে সেখানে কাজ করা পার্টির সদ্যসদেরই।

তরুণ প্রজন্ম থেকে যোগ্য ও উন্নতমানের কর্মী গড়ে তোলা পার্টি কমিটিগুলির অগ্রাধিকারপ্রাপ্ত কাজ। তরুণ প্রজন্ম থেকে পার্টিতে আসার প্রবণতা কম। প্রবণতা বাড়াতে জেলা কমিটিগুলিকে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা গ্রহণ করতে বলা হয়েছে পার্টি চিঠিতে। দলের মুখপত্র সমস্ত পার্টি ইউনিটে থাকছে না। এই সিদ্ধান্ত অবিলম্বে কার্যকর করতে বলা হয়েছে। পার্টি চলার ক্ষেত্রে সদস্যদের লেভি প্রদান বড় বিষয়। আর সেই লেভি দেওয়া নিয়েও পার্টি সদস্যদের মধ্যেও অনীহা লক্ষ্য করছে আলিমুদ্দিন। লেভি (Levy) কম দেওয়ার জন্য অনেকে পার্টিতে আয় গোপন করছে।

[আরও পড়ুন: গায়ক হতে মুম্বই পাড়ি, ভুল ট্রেনে উঠে বিপত্তি, পাঠানকোটে উদ্ধার ২ শিশু ও এক কিশোর]

এ বিষয়ে জেলা পার্টি নেতৃত্বকে সতর্ক করা হয়েছে। একই সঙ্গে বয়সের কারণে দলীয় পদ ও সদস্যপদ থেকে অব্যাহতি নেওয়া প্রবীণদের পুনর্বাসন করার কথাও বলা হয়েছে। তাঁদের পার্টির লাইব্রেরি, পার্টি স্কুল, পার্টির বিভিন্ন দপ্তরের কাজে দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে