BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

আড়াই মাসে কলকাতা মেডিক্যালের ডাক্তার-স্বাস্থ্যকর্মীদের খাবারের বিল দেড় কোটি টাকা!

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 29, 2020 10:15 pm|    Updated: September 29, 2020 10:25 pm

An Images

অভিরূপ দাস: মাত্র আড়াই মাসে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের (Medical College Kolkata) চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের খাবারের বিল এসেছে দেড় কোটি টাকা! যা দেখে রীতিমতো অবাক স্বাস্থ্যভবন। বিলে লাগাম টানতে ইতিমধ্যেই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

চলতি বছরের ৭ মে কোভিড (COVID) হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করা হয় মেডিক্যাল কলেজের নাম। সেই থেকে প্রতিনিয়ত করোনা রোগীরা যাচ্ছেন সেখানে। পরিষেবা দিতে ২৪ ঘণ্টাও হাসপাতালে থাকতে হচ্ছিল চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের। বাধ্য হয়ে অনেকেই হাসপাতালের আশেপাশে ঘর ভাড়া নিয়েছিলেন। পরিস্থিতি বিবেচনা করে তাঁদের জন্য খাবারের বন্দোবস্ত করা হয়েছিল। ঠিক হয়েছিল কোভিড ফান্ড থেকেই খাবারের অর্থ দেবে রাজ্য সরকার। নির্দেশ মতো বেসরকারি সংস্থা নিয়মিত খাবার পৌঁছে দিয়েছে চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে। কিন্তু খাবারের বিল হাতে মিলতেই চক্ষুচড়কগাছ। তড়িঘড়ি আড়াই মাসে কীভাবে দেড় কোটি টাকা বিল কীভাবে আসতে পারে, সে বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়। তখনই প্রকাশ্যে আসে আসল বিষয়।

[আরও পড়ুন: পুজোর আগেই সারাতে হবে কলকাতার দু’শো রাস্তা, কলকাতা পুরসভাকে তালিকা দিল লালবাজার]

জানা গিয়েছে, যারা ২৪ ঘণ্টা ডিউটি করবেন শুধুমাত্র তাঁদের জন্যই খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছিল সরকারের তরফে। কিন্তু নির্দেশের পরোয়া না করেই সকাল ও বিকেলের শিফটের চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরাও ভাগ বসিয়েছেন মধ্যাহ্নভোজে। যার পরিণতি এই দেড় কোটি টাকার বিল! বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই হাসপাতালের তরফে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। যেখানে দু’বেলা মিলিয়ে প্রায় ৯০০ জন খেতেন সেখানে এবার থেকে পাবেন মাত্র ১০০ জন। একমাত্র হাসপাতালে থেকে ২৪ ঘণ্টা কাজ করলে তবেই খাবার মিলবে বলে সাফ জানানো হয়েছে। বিল নিয়ন্ত্রণে রাখতে মেনুতেও বদল হতে পারে। সেইসঙ্গে এবার থেকে প্রতি প্লেটের দাম রাখা হবে ১৬০ থেকে ১৭০ টাকার মধ্যে। 

[আরও পড়ুন: রাম মন্দির নিয়ে পোস্ট করায় খুনের হুমকি হাসিনকে, পুলিশের কাছে রিপোর্ট চাইল হাই কোর্ট]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement