BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্বাস্থ্যভবন বলছে পজিটিভ, নার্সিংহোম বলছে নেগেটিভ! চিকিৎসকের করোনা রিপোর্ট নিয়ে ধন্দ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 13, 2020 5:37 pm|    Updated: August 13, 2020 5:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাস্থ্যভবন জানিয়েছে বৃদ্ধ করোনা (Corona Virus) আক্রান্ত। ফ্ল্যাট স্যানিটাইজও হয়েছে। কিন্তু নার্সিংহোম বলছে, তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ। কোন রিপোর্টটি সঠিক? চরম ধোঁয়াশায় পরিবার।

দক্ষিণ কলকাতার (Kolkata) লেক গার্ডেন্সের বাসিন্দা ওই বৃদ্ধ পেশায় চক্ষু চিকিৎসক। স্ত্রীর সঙ্গে থাকেন তিনি। বেশ কিছুদিন ধরেই হৃদরোগে ভুগছিলেন। ভরতি করা হয়েছিল হাসপাতালে। ১০ দিন আগে বাড়ি ফেরেন তিনি। কিন্তু স্ত্রীর পক্ষে একা তাঁর দেখভাল করা সম্ভব হচ্ছিল না। সেই কারণে ফের ওই চিকিৎসককে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। নিয়ম মোতাবেক ১০ আগস্ট ওই বৃদ্ধের নমুনা সংগ্রহ করা হয় করোনা পরীক্ষার জন্য। নার্সিংহোম সূত্রে খবর, তাদের তরফে নমুনা পাঠানো হয়েছিল দিল্লিতে। বৃদ্ধের স্ত্রীর কথায়, ১১ আগস্ট সকালে স্বাস্থ্যভবনের তরফে তাঁকে ফোন করে জানানো হয় তাঁর স্বামী করোনা আক্রান্ত। এরপর স্থানীয় কাউন্সিলরও তাঁকে ফোন করেন। বুধবার পুরসভার কর্মীরা ফ্ল্যাট স্যানিটাইজ করতে হাজির হন ওই চিকিৎসকের আবাসনে।

[আরও পড়ুন: মারণ ভাইরাস থেকে বাঁচাবে ইলেকট্রনিক্স মাস্ক, মুশকিল আসান যাদবপুরের পড়ুয়াদের]

বৃদ্ধের স্ত্রীর কথায়, এই পরিস্থিতিতে বুধবার সকালে নার্সিংহোমের তরফে তাঁকে জানানো হয় যে তাঁর স্বামীর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ। এতেই তৈরি হয়েছে চরম ধন্দ। স্বামী করোনা নেগেটিভ না পজিটিভ তাই বুঝতে পারছেন না স্ত্রী। এখানে প্রশ্ন উঠছে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট যদি বুধবার এসে থাকে, তবে কীভাবে স্বাস্থ্যভবন তার আগেই রিপোর্ট জানাল? এ বিষয়ে স্থানীয় কাউন্সিলরের যুক্তি, পুরসভা থেকে তাঁকে এলাকার আক্রান্তদের তালিকা দেওয়া হয়েছিল। সেখানে নাম ছিল ওই বৃদ্ধের। তবে এর বেশি কিছুই জানেন না তিনি। গোটা ঘটনায় হতবাক ওই দম্পতি। 

[আরও পড়ুন: কোভিড যোদ্ধাদের প্রতি আরও মানবিক রাজ্য সরকার, মৃত্যুতে পরিবারের কাউকে চাকরির সিদ্ধান্ত]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement