১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কোভিড যুদ্ধেও জোটবদ্ধ, রাজ্যে চিকিৎসা কেন্দ্র ও সেফ হোম গড়বে বাম-কংগ্রেস

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 17, 2020 8:39 pm|    Updated: August 17, 2020 9:11 pm

Left and Congress wil build health centres and safe homes for COVID Patients

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: করোনা যুদ্ধে লড়াইয়ের পদক্ষেপ হিসেবে বিশাখাপত্তনমে দলের গোটা জেলা কার্যালয়কে আইসোলেশন সেন্টার (Isolation Centre) করে তোলা হয়েছে। এবার বাংলাতেও জোটসঙ্গী কংগ্রেসকে নিয়ে একই পথে হাঁটতে চলেছে রাজ‍্য সিপিএম।  আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের সিদ্ধান্ত, এই মূহুর্তে রাজ‍্যে করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করাই প্রথম ও প্রধান কাজ। সে হিসেবে দলীয় কর্মী, সমর্থক ও আমজনতাকে কোভিড চিকিৎসা পরিষেবা দিতে রাজ‍্যজুড়ে চিকিৎসা কেন্দ্র ও সেফ হোম তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিল বাম-কংগ্রেস জোট। পাশাপাশি অক্সিজেন জোগান নিশ্চিত করারও লক্ষ্যও রয়েছে।

কোথাও এককভাবে সিপিএম, কোথাও আবার বামফ্রন্টের উদ‍্যোগে এই পরিষেবা দেওয়া হবে। দলীয় সূত্রে খবর, কোভিড চিকিৎসা কেন্দ্রগুলির সঙ্গে যুক্ত করা হচ্ছে বাম সমর্থক চিকিৎসকদেরও। ইতিমধ্যে এই চিকিৎসা কেন্দ্রগুলির কাজে সহযোগিতা করার জন্য পার্টি কর্মীদের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে আলিমুদ্দিনের তরফে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনেও বাড়তি ফি, বেসরকারি স্কুলের আয়-ব্যয়ের হিসাব নিতে কমিটি গড়ার নির্দেশ আদালতের]

রাজ্যে করোনা (Coronavirus) চিকিৎসার পরিস্থিতি বেহাল বলে প্রায়শয়ই সরব হতে শোনা গিয়েছে রাজ্যের বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্বকে। প্রায় প্রতিদিনই কিছু না কিছু অভিযোগ তুলছিলেন তাঁরা। কিন্তু প্রশ্ন উঠছিল, সংগঠন হিসাবে অভিযোগ করেই কি দায় সারবে বিরোধী নেতৃত্ব? তার জবাবে বামফ্রন্টের ভূমিকা হিসেবে শ্রমজীবী ক্যান্টিনের কথা তুলে ধরা হচ্ছিল। রাজ্যজুড়ে কয়েকশো ক্যান্টিনের মাধ্যমে গরিব মানুষের কাছে একবেলা খাওয়ার পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সূর্যকান্ত মিশ্র বা সুজন চক্রবর্তীরা। এছাড়াও এলাকা ভিত্তিতে জীবাণুমুক্ত করার কাজে পার্টির ‘রেড ভলান্টিয়ার’রা নিযুক্ত রয়েছে বলেও জানান। কোভিড মোকাবিলায় মানুষের পাশে দাঁডানোই পার্টির মূল কর্মসূচি বলে নিচুতলায় নির্দেশও পাঠান আলিমুদ্দিনের কর্তারা।

এবার প্রতিটি এরিয়া কমিটিকে কোভিড চিকিৎসা কেন্দ্র, অক্সিজেন পরিষেবা ও সেফ হোম চালু করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে দলের তরফে। ইতিমধ্যে বারাসত ও হাওড়ায় এই পরিষেবা চালু হয়েছে। মঙ্গলবার নিমতায় চালু হচ্ছে করোনা চিকিৎসা কেন্দ্র। এই কর্মসূচিতেও জোটবার্তা দিতে উদ্যোগী বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্ব। নিমতার এই কেন্দ্রের নামকরণ করা হয়েছে সদ্য প্রয়াত সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তীর নামে। সেখান থেকে যে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে, তার নামকরণ হয়েছে প্রয়াত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রর নামে। সেফ হোম তৈরি হচ্ছে চিকিৎসক-নেতা শংকর সেনের নামে।

[আরও পড়ুন: ‘দিলীপের সঙ্গে কোনও দ্বন্দ্ব নেই, জোট বেঁধেই লড়ব’, জল্পনা ওড়ালেন মুকুল]

মূলত স্থানীয় বিধায়ক তন্ময় ভট্টাচার্যর উদ্যোগে এই পরিষেবাকেন্দ্র হচ্ছে বলে সিপিএমের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ২৪ ঘণ্টা চিকিৎসকের ব্যবস্থা রাখা সম্ভব কিনা, তা দেখতে বলা হয়েছে। পার্টির সঙ্গে যুক্ত চিকিৎসকদের এই দায়িত্ব নিতে হবে। হাসপাতালে পরিষেবা দেওয়ার পর এই চিকিৎসাকেন্দ্রে তাঁদের যুক্ত হওয়ার আবেদন জানিয়েছে রাজ্য সিপিএম।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে