৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোনা-সহ বিমানবন্দরে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী’র আটক হওয়ার ঘটনা নিয়ে ভোটের মুখে বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল রাজ্য রাজনীতি৷ বেআইনিভাবে থাইল্যান্ড থেকে সোনা তিনি এখানে নিয়ে আসছিলেন, এই অভিযোগে শুল্ক দপ্তরের অফিসাররা তাঁর ব্যাগে তল্লাশি চালিয়েছিলেন বলে অভিযোগ৷  সেই ঘটনার জেরে কম জলঘোলা হয়নি৷ এসব নিয়ে এতদিন মুখ খোলেননি মুখ্যমন্ত্রী তথা অভিষেকের পারিবারিক সদস্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার এক সর্বভারতীয় চ্যানেলের প্রশ্নের মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কিছু বলতে না চেয়েও জানালেন, ‘রুজিরা অন্তঃসত্ত্বা৷ ওই ঘটনার পর রুজিরা ডিপ্রেশনে ভুগছে৷ ভাল নেই ও৷’

[ আরও পড়ুন: তৃতীয় দফা ভোটের আগে শহরে ফের উদ্ধার জালনোট, গ্রেপ্তার ১]

ঘটনার সূত্রপাত মার্চের মাঝামাঝিতে৷ ১৬ মার্চ মাঝরাতে ব্যাংকক থেকে কলকাতা বিমানবন্দরে নামার পর রুটিন চেকিংয়ের সময় বাড়তি সোনা পাওয়া যায় মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপো তথা যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেকের স্ত্রী রুজিরার ব্যাগে৷ এছাড়া বিমানবন্দরে তাঁর দেওয়া পরিচয়পত্র ঘিরেও কিছু জটিলতা তৈরি হয়েছিল৷ বিজেপি এই বিষয়টিকে হাতিয়ার করার চেষ্টা করে৷ পালটা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও সাংবাদিক বৈঠক করে যাবতীয় প্রশ্নের জবাব দিয়ে দেন৷ পালটা প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা আধিকারিকদের দিকেও৷ এমনকী উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পুলিশও নির্বাচন কমিশনে রিপোর্ট দিয়ে জানায়, কোনও সোনা বিমানবন্দরে বাজেয়াপ্ত হয়নি৷ কিন্তু তারপরেও সমালোচনা থামেনি৷ এনিয়ে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে তিনি পুরোপুরি এড়িয়ে গিয়ে বলেছিলেন, ‘আমি এবিষয়ে কিছু জানি না৷’

[ আরও পড়ুন: বাংলায় এনআরসি করতে এলে মিলবে বিদায়ী সার্টিফিকেট, বালুরঘাটে আক্রমণাত্মক মমতা]

ওইদিন বিমানবন্দরে ওভারসিজ ইন্ডিয়ান সিটিজেন বা OCI কার্ডের নথিপত্র যথাযথ পেশ করতে না পারায় রুজিরা নারুলাকে নোটিস পাঠায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷ সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে স্বভাবতই অভিষেকের স্ত্রী’র এই ঘটনা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ তিনি প্রথমে মূল বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও, ঘটনার প্রভাব নিয়ে মুখ খোলেন৷ জানান, ‘ও পাঞ্জাবি মেয়ে৷ বাংলাটা ভাল করে বোঝে না৷ ঠিক কী হয়েছিল, তা বলতে পারব না৷ তবে ওই ঘটনার পর ও ডিপ্রেশনে ভুগছে৷ ও অন্তঃসত্ত্বা৷ এই অবস্থায় একেবারেই ভাল নেই৷’ রুজিরার ভোটার বা প্যানকার্ডে নথি আর বিমানবন্দরে পেশ করা ওসিআই কার্ডের নথিতে গরমিল থাকার বিষয়টি নিয়ে যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিকমতো জানতেন না, সেটাই বোঝাতে চাইলেন বলে মনে করছে মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ মহলের একাংশ৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং